গরমে ফোঁড়া, জেনে নিন সারানোর ঘরোয়া উপায়

0
67

TEASঅনলাইন ডেস্ক: ত্বকে, লোমকূপে স্ট্যাফাইলোকক্কাস নামক ব্যাকটেরিয়ার সংক্রমণে ফোঁড়া, লোমফোঁড়া ইত্যাদি হয়। ফোঁড়া বা অ্যাবসেস শুরু হয় ত্বকে ছোট উদ্বেদ আকারে। ধীরে ধীরে আকারে বড় হয়, লাল হয় ও পুঁজ জমে, অনেক সময় ফোঁড়ার আশপাশের বেশ খানিকটা অংশও লাল হয়ে যায়। বলাবাহুল্য ফোঁড়া খুব বেদনাদায়ক, প্রচণ্ড টাটানো ব্যথা থাকে।

৫০ গ্রাম নিমের পাতা বেটে নিয়ে তাকে একটা ট্যাবলেটের মতো তৈরি করে নিন। একে পুলটিসের মতো ফোড়ার ওপর লাগালে ফোড়া সেরে যায়। ফোড়াতে যদি পুঁজ হয়ে গিয়ে থাকে, তাহলে নিমের পাতার সঙ্গে সম পরিমাণ গোলমরিচ গুঁড়ো করে দিয়ে ফোড়াতে লাগান। ফোঁড়া দ্রুত শুকিয়ে যাবে।

১. পুঁই পাতা
দুটো পুঁই পাতা ভালো করে ধুয়ে বেটে নিন। দিনে দু বার ব্রণ বা ফোঁড়ার ওপর পুরু করে প্রলেপ দিয়ে রাখুন।

৩. গাঁদা ফুল এবং পাতা
দুটি ফুল এবং পাঁচটি পাতা ভালো করে ধুয়ে থেঁতলে নিন। দিনে দু বার ফোঁড়া বা ব্রণের ওপর পুলটিশ হিসেবে লাগান।

৪. কাঁঠালের কষ
কাঁঠালের গাছ থেকে দুধের মতো যে কষ বের হয় তা সংগ্রহ করে তার সাথে সামান্য ভিনেগার মিশিয়ে নিন। মিশ্রণটি গরম করে হট কম্প্রেস হিসেবে ব্যবহার করুন। সেঁক দেবার জন্য পরিষ্কার ছোট সুতি কাপড়ের টুকরা ব্যবহার করুন। বিশ মিনিট করে সেঁক দিন।

৪. জবা ফুল এবং পাতা
পাঁচ কচি পাতা এবং দুটো ফুল ভালো করে ধুয়ে থেঁতলে নিন। এটা সরাসরি ব্রণ অথবা ফোঁড়ার ওপর বসিয়ে দিন। দিনে দুই বার এভাবে করুন।

৫. কাঠ কয়লা
কয়লা গুঁড়ো করে নিন। পানিতে ভিজিয়ে এক টুকরো পরিষ্কার কাপড়ে বা রুমালে জড়িয়ে নিন। সরাসরি পুলটিশ হিসেবে ব্যবহার করুন দিনে দু বার।

৬. গরম সেঁক: একটা পরিষ্কার কাপড় নুন, গরম জলে ফুটিয়ে নিন। এই ভেজা গরম কাপড় ফোঁড়ার ওপর ১০ মিনিট চেপে রেখে সেঁক দিন।

দিনে তিন থেকে চার বার এটা করুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here