নিউ ইয়র্কে বোনের মত থাকবে জামালপুর-শেরপুর

0
98

morshedazamanনিউইয়র্ক: যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্কের সামাজিক সংগঠন জামালপুর জেলা সমিতি ও শেরপুর জেলা কল্যাণ সমিতি প্রবাসে বোনের মত থেকে নতুন দৃষ্টান্ত স্থাপন করতে চান। গত শনিবার সন্ধ্যায় নিউ ইয়র্কের জ্যাকসন হাইটসের একটি রেস্তোরাঁয় অনুষ্ঠিত নবনির্বাচিত কমিটির সদস্যদের অভিষেক ও বর্ষবরণ অনুষ্ঠানে একথা বলেন দুই সংগঠনের নেতার।

জামালপুর জেলা সমিতির সভাপতি অ্যাড. মোরশেদা জামান তার বক্তব্যে শেরপুর জেলা কল্যাণ সমিতির নবনির্বাচিত সভাপতি নাহিদ রায়হান লিখনকে উদ্দেশ্য করে বলেন, যেহেতু বাংলাদেশে আমাদের এ দু’জেলার অবস্থান পাশাপাশি তাই প্রবাসেও আমরা বোনের মত পাশাপাশি থেকে দুই জেলার মানুষের কল্যাণে কাজ করতে চাই। চলার পথে যেসব প্রতিবন্ধকতার সৃষ্টি হবে সবার সহযোগিতায় তা মোকাবেলা করব। মতানৈক্য ভুলে এ দুই জেলার সকল প্রবাসীদের সহযোগিতাও কামনা করেন তিনি।

তার এ বক্তব্যে একমত পোষন করেন সাপ্তাহিক ঠিকানার সম্পাদক লাভলু আনসার, একুশে পদকপ্রাপ্ত টিভি নাট্যাভিনেতা জামাল উদ্দিন হোসেন ও বাংলাদেশ সোসাইটির সভাপতি আজমল হোসেন কুনু। তারা মোরশেদা জামানের বক্তব্যের সূত্র ধরে বলেন, জামালপুর ও শেরপুর জেলা সমতির সভাপতিদের মত যদি বাংলাদেশের নেত্রীরা যদি কখনও কোনদিন এভাবে বলতেন আমরা দু’বোনের মত পাশাপাশি দেশ চালব তাহলে তাহলে সমগ্র বাংলাদেশের ইতিহাস বদলে যেত।

অনুষ্ঠানের শুরুতেই শেরপুর জেলা কল্যাণ সমিতির নবনির্বাচিত কমিটির সদস্যদের শপথবাক্য পাঠ করান সংগঠনের প্রধান উপদেষ্টা ও সাপ্তাহিক ঠিকানার জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক আবুল কাশেম।

প্রধান উপদেষ্টা আবুল কাশেমের সভাপতিত্বে এবং সুব্রত সাহা লিপনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি নিউ ইয়র্কস্থ বাংলাদেশ কনসুলেটের কনসাল জেনারেল শামীম আহসান। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন প্রবাসের বিশিষ্ট লেখিকা মিনা ফারাহ, বিশিষ্ট টিভি প্রযোজক শাহিদা আরবী, জামালপুর জেলা সমিতির সভাপতি অ্যাড. মোরশেদা জামান ও প্রধান সমন্বয়কারী মামুন রাশেদ প্রমুখ। এছাড়াও অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন সংগঠনের নবনির্বাচিত সভাপতি নাহিদ রায়হান লিখন, সাধারন সম্পাদক মোহাঃ আক্তারুজ্জামান, মোহাম্মদ সাদী, ও রানা রায়হান প্রমুখ।

দ্বিতীয় পর্বে এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে সঙ্গীত পরিবেশন করেন প্রবাসের জনপ্রিয় সঙ্গীতশিল্পী শাহরিন সুলতানা, জিনাত রেহানা রত্না ও অতিথি শিল্পী কৌশলী ইমা। শিল্পীদের যন্ত্রসঙ্গীতে সঙ্গত করেন প্রখ্যাত ঢোল বাদক মোহাম্মদ শফিক।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here