নিউইয়র্কে আন্তর্জাতিক বাংলা উৎসব ও বইমেলার বর্ণিল উদ্বোধন

 

কথা সাহিত্যিক সেলিনা হোসেন লাল-সবুজে রাঙ্গানো ২৫টি বেলুন উড়িয়ে মেলার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন।
কথা সাহিত্যিক সেলিনা হোসেন লাল-সবুজে রাঙ্গানো ২৫টি বেলুন উড়িয়ে মেলার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন।

বর্ণমালা নিউজ, নিউইয়ক: মুক্তধারার আয়োজনে ২০ মে শুক্রবার থেকে শতভাষা ও সাংষ্কৃতির শহর নিউইয়র্কে তিন দিনব্যাপী আন্তর্জাতিক বাংলা উৎসব ও বইমেলা শুরু হয়েছে। বাংলাদেশের প্রখ্যাত কথা সাহিত্যিক সেলিনা হোসেন সূর্য ড়–বার কিছু আগে সাতটার পরলাল-সবুজে রাঙ্গানো ২৫টি বেলুন উড়িয়ে মেলার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন। বাঙ্গালীর প্রাণকেন্দ্র জ্যাকসন হাইটসের পাবলিক স্কুল ৬৯-এ মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব রামেন্দু মজুমদার, ভয়েজ অব আমেরিকার রোকেয়া হায়দার, জামাল উদ্দিন হোসেন, লুৎফর রহমান রিটন, গুলকেতিন প্রমুখ। পরে এক আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এর আগে বিকেল সাড়ে ৬টায় জ্যাকসন হাইটস এর ডাইভারসিটি প্লাজায় এক বর্ণিল শোভাযাত্রার মধ্যে দিয়ে মেলার কার্যক্রম শুরু হয়। শোবাযাত্রার অগ্রভাগে ছিলেন উদ্বোধক সেলিনা হোসেন সহ ঢাকা ও কলকাতা থেকে আগত অতিথিরা। এবারই প্রথম মুক্তধারার বইমেলার আয়োজনস্থলে আনুষ্ঠানিক ভাবে বাংলাদেশ, আমেরিকার পতাকার সাথে ভারতীয় পতাকা উড়তে দেখা যায়। মুক্তধারা ও পরবর্তীতে মুক্ধারা ফাউন্ডেশনের নামে আয়োজিত এ মেলার এ বছর ২৫-তম বার্ষিকী।
বাংলাদেশ থেকে যারা মেলায় অংশগ্রহণের করছেন, তাঁদের মধ্যে রয়েছেন বাংলা একাডেমির মহা পরিচালক শামসুজ্জামান খান, অনুবাদক অধ্যাপক আবদুস সেলিম, নাট্য ব্যক্তিত্ব রামেন্দু মজমদার, অভিনেতা ও লেখক আ

শোভাযাত্রার অগ্রভাগে ছিলেন উদ্বোধক সেলিনা হোসেন সহ ঢাকা ও কলকাতা থেকে আগত অতিথিরা।
শোভাযাত্রার অগ্রভাগে ছিলেন উদ্বোধক সেলিনা হোসেন সহ ঢাকা ও কলকাতা থেকে আগত অতিথিরা।

ফজাল হোসেন, ইত্তেফাক পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক তাসমিমা হোসেন, প্রবন্ধকার আহমেদ মাজহার, কবি ও চ্রানেল আইর অনুষ্ঠান প্রধান ছড়াকার আমীরুল ইসলাম, কবি সৈয়দ আল ফারুক, শব্দঘর পত্রিকার সম্পাদক ও লেখক মোহিত কামাল, কবি গুলতেকিন খান।
এছাড়াও ঢাকার চ্যানেল আই এর প্রধান নির্বাহী, বিশিষ্ট লেখক ফরিদুর রেজা সাগরের উপস্থিত থাকার কথা থাকলেও মায়ের অসুস্থতার কারনে তিনি আসতে পারেননি। শিল্পীদের মধ্যে বাংলাদেশ থেকে এসেছেন বিশিষ্ট শিল্পী সামিনা চৌধুরী, ফেরদৌস আরা, নজরুলগীতি শিল্পী সুজিত মোস্তফা, পশ্চিমবঙ্গ থেকে রবীন্দ্র সংগীত শিল্পী কমলিনী মুখোপাধ্যায় এবং লন্ডন থেকে এসেছেন শিল্পী নাহিদ নাজিয়া।
কোলকাতার লেখকদের মধ্যে কথা সাহিত্যিক সমরেশ মজুমদার, টেকনো ইন্ডিয়ার প্রধান নির্বাহী ও লেখক সত্যম রায় চৌধুরী এবং প্রকাশক ও লেখক ত্রিদিব কুমার চ্যাটার্জীও বইমেলায় অতিথি হিসেবে যোগ দিচ্ছেন। জার্মানী থেকে এসেছেন কবি নাজমুন নেসা পিয়ারী। কানাডা থেকে যোগ এসেছেন বিশিষ্ট লেখক লুৎফুর রহমান রিটন, ইকবাল হাসান, মুস্তফা চৌধুরী, মাহফুজুল বারী, জসিম মল্লিক এবং শিল্পী শিখা আহমাদ, ফারহানা শান্তা এবং শেখর গোমেস।
উত্তর আমেরিকার কবি ও সাহিত্যিকদের অনেকেই মেলায় অংশ নিচ্ছেন। বাংলা ভাষার অন্যতম প্রধান কবি একুশে পদকপ্রাপ্ত শহীদ কাদরী এবারের মেলায় তাঁর নির্বাচিত কবিতা নিয়ে একটি বিশেষ অনুষ্ঠানে অংশ নেবেন।

IMG_5667

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here