ট্রাম্প ‘ভীতি ও জাতিগত বিদ্বেষ’ ছড়াচ্ছেন!

BIRCH RUN, MI - AUGUST 11: Republican presidential candidate Donald Trump speaks at a press conference before delivering the keynote address at the Genesee and Saginaw Republican Party Lincoln Day Event August 11, 2015 in Birch Run, Michigan. This is Trump's first campaign event since his Republican debate last week. (Photo by Bill Pugliano/Getty Images)

বর্ণমালা ডেস্ক: ডোনাল্ড ট্রাম্পযুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রিপাবলিকান দলের মনোনয়ন-প্রত্যাশী ডোনাল্ড ট্রাম্প ইঙ্গিত করেছেন, প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা সন্ত্রাসীদের পক্ষে কাজ করছেন। তিনি যে ইসলামি জঙ্গিবাদ কথাটা বলতে অস্বীকার করেছেন, তা থেকেই সে কথা প্রমাণিত হয়। হিলারি ক্লিনটনও সন্ত্রাসীদের পক্ষে কাজ করছেন বলে অভিযোগ ট্রাম্পের। যে ভাষায় হিলারি জঙ্গিবাদের নিন্দা করেছেন, তা থেকে জঙ্গিবাদ উৎসাহিত হবে বলে তিনি দাবি করেন।

সোমবার বিভিন্ন গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলার সময় ফ্লোরিডার অরল্যান্ডোর সন্ত্রাসী ঘটনা প্রসঙ্গে ট্রাম্প ওবামা প্রশাসনের বিরুদ্ধে তাঁর কড়া সমালোচনা অব্যাহত রাখেন। তিনি দাবি করেন, অতি সতর্কতার সঙ্গে কথা বলার প্রবণতার জন্য আমেরিকা কঠোর ব্যবস্থা নিতে ব্যর্থ হচ্ছে। তিনি ঘোষণা করেন, ‘আমরা যদি কঠোর হতে ব্যর্থ হই, তাহলে অতি সত্ত্বর আমেরিকা নামক এই দেশটিই আর থাকবে না।’

নিউ হ্যাম্পশায়ারের একটি কলেজে জাতীয় নিরাপত্তা-বিষয়ক এক ভাষণে সোমবার ট্রাম্প অভিবাসনবিরোধী বিভিন্ন বক্তব্য নতুন করে তুলে ধরেন। তিনি ‘যুক্তরাষ্ট্রে কোনো মুসলমানের প্রবেশ নিষিদ্ধ করার প্রস্তাব করেছেন’—এর পুনরুল্লেখ করে যেসব দেশ সন্ত্রাসবাদের জন্য পরিচিত, সেখান থেকে সব রকম অভিবাসন বন্ধের দাবি জানান।

অরল্যান্ডোর একটি নাইটক্লাবে গণ গোলাবর্ষণের জন্য দায়ী আফগান বংশোদ্ভূত ও নিউইয়র্কে জন্মগ্রহণকারী মার্কিন নাগরিক ওমর মতিনকে ট্রাম্প একজন আফগান হিসেবে চিহ্নিত করে বলেন, হিলারি ক্লিনটন মতিনের মতো ইসলামি জঙ্গিকে আমেরিকায় প্রবেশাধিকার দিতে চায়। ‘এটি খুবই নির্বোধের মতো কাজ’—মন্তব্য তাঁর।

ট্রাম্প ওবামা প্রশাসনকে ‘অযোগ্য’ অভিহিত করে বলেন, সিরিয়ার উদ্বাস্তুদের আমেরিকায় আশ্রয় দেওয়ার যে পরিকল্পনা প্রেসিডেন্ট ওবামা করেছেন, তার ফলে সন্ত্রাসবাদ বৃদ্ধি পাবে। এক ব্যর্থ অভিবাসন নীতির মাধ্যমে পশ্চিমা দেশগুলো ইসলামি জঙ্গিবাদকে আমদানি করছে। এই নীতির জন্য ওবামাকে সরাসরি অভিযুক্ত করেন ট্রাম্প।

হোয়াইট হাউস অবশ্য ট্রাম্পের অভিযোগগুলো গুরুত্বের সঙ্গে গ্রহণ না করার নীতি গ্রহণ করেছে। ওবামা সন্ত্রাসীদের পক্ষে কাজ করছে বলে যে অভিযোগ ট্রাম্প করেছেন, সে বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে ওবামার মুখপাত্র জশ আর্নেস্ট সরাসরি কোনো মন্তব্য করা থেকে বিরত থাকেন। তিনি বলেন, এসব অবান্তর বিষয়ে মনোযোগ দিয়ে সময় নষ্ট করা অর্থহীন। ওবামা সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে যে ব্যবস্থা নিয়েছেন, তা থেকে প্রমাণিত হয় এই প্রশ্নে তাঁর অবস্থান কী।

ওবামা ‘র‍্যাডিকাল ইসলাম’ কথাটি কেন ব্যবহার করবেন না, তার ব্যাখ্যায় জশ আর্নেস্ট বলেন, ‘আমেরিকার শত্রু ইসলাম নয়; একদল সন্ত্রাসী যারা ইসলামের একটি বিকৃত ব্যাখ্যা নিজেদের রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে ব্যবহার করতে চায়।’ তিনি বলেন, প্রেসিডেন্ট ওবামা এসব সন্ত্রাসীদের কার্যকলাপ আইনসিদ্ধ হয় এমন কোনো অস্ত্র তুলে দেবেন না। তিনি আরও বলেন, ‘প্রকৃত সত্য হলো—এসব সন্ত্রাসীদের হাতে সবচেয়ে বেশি হতাহত হয়েছে সম্পূর্ণ নিরপরাধ মুসলমান।’

ওবামা নিজে সাংবাদিকদের বলেন, অরল্যান্ডোর গণ গুলিবর্ষণ কোনো ব্যাপক ষড়যন্ত্রের অংশ নয়। ওমর মতিন নিজে পুলিশের কাছে করা এক টেলিফোন বার্তায় ইসলামিক স্টেটের (আইএস) প্রতি নিজের আনুগত্য প্রকাশ করলেও তাঁর সঙ্গে এই সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর সরাসরি কোনো যোগাযোগ ছিল, তার কোনো প্রমাণ নেই।

বিভিন্ন ভাষ্যকার জাতীয় নিরাপত্তার নামে ট্রাম্প যেভাবে ভীতি ও একটি ধর্মীয় গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে প্রচার অভিযান শুরু করেছেন, তাতে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। ওয়াশিংটন পোস্ট পত্রিকায় ডানা মিলব্যাঙ্ক লিখেছেন, অরল্যান্ডোর ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলাকে ট্রাম্প তাঁর রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে ব্যবহারের চেষ্টা করছেন। ট্রাম্প যেভাবে যুক্তরাষ্ট্রের অভ্যন্তরে সন্ত্রাসবাদকে মদদ দেওয়ার জন্য মুসলমানদের দোষী করছেন, তাতে বিস্ময়ের কোনো ব্যাপার হবে না যদি তিনি আমেরিকান মুসলমানদের আলাদাভাবে চিহ্নিত করার জন্য বিশেষ ব্যাজ বা পরিচয়পত্র বহনের প্রস্তাব করেন। উল্লেখযোগ্য যে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের আগে হিটলার জার্মানিতে সব ইহুদির জন্য পরিচয়পত্র বহনের নির্দেশ দিয়েছিলেন।

অরল্যান্ডোর ট্র্যাজেডিকে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে ব্যবহারের নিন্দা করেছে নিউইয়র্ক টাইমস। এই পত্রিকায় এমা রোলার লিখেছেন, গত ডিসেম্বরে ক্যালিফোর্নিয়ার স্যান বার্নাদিনোতে সন্ত্রাসী ঘটনার পর ট্রাম্প উল্লাসের সঙ্গে বলেছিলেন যে যখন কোনো সন্ত্রাসী ঘটনা ঘটে, তখনই দেশে তাঁর সমর্থনের পরিমাণ বেড়ে যায়। বাছাই পর্বের নির্বাচনী চক্রে ভীতির ব্যবহার করে ট্রাম্প হয়তো রিপাবলিকান সদস্যদের মধ্য থেকে কিছু বাড়তি ভোট সংগ্রহে সক্ষম হয়েছেন, কিন্তু জাতীয় নির্বাচনে সেই চেষ্টা কাজে লাগবে—এ কথা ভাবার কোনো কারণ নেই বলে তিনি মন্তব্য করেন।

-প্রথম আলোর সৌজন্যে

BIRCH RUN, MI - AUGUST 11: Republican presidential candidate Donald Trump speaks at a press conference before delivering the keynote address at the Genesee and Saginaw Republican Party Lincoln Day Event August 11, 2015 in Birch Run, Michigan. This is Trump's first campaign event since his Republican debate last week. (Photo by Bill Pugliano/Getty Images)
BIRCH RUN, MI – AUGUST 11: Republican presidential candidate Donald Trump speaks at a press conference before delivering the keynote address at the Genesee and Saginaw Republican Party Lincoln Day Event August 11, 2015 in Birch Run, Michigan. This is Trump’s first campaign event since his Republican debate last week. (Photo by Bill Pugliano/Getty Images)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here