বাংলা ক্যারাভান  পালন করেছে কানাডার ১৪৯তম জন্মদিবস!

সিবিএনএ কানাডা থেকে :  গতকাল পহেলা জুলাই কানাডা দিবসে বরাবরের মত অটোয়ায় ” বাংলা ক্যারাভান “বিপুল আনন্দ উল্লাসে পালন করেছে কানাডার ১৪৯তম জন্মদিবস ‘কানাডা ডে’ । দেশী পোশাকা-আশাক আর বাঙালির ঐতিহ্যবাহী ঢোল, মৃCanada day01দঙ্গ, শিঙ্গা, দুমুরু ইত্যাদি বাদনযন্ত্র সহযোগে পোষ্টার-ফেস্টুন ওবাঙ্গালির চিরাচরিত মঙ্গল-শোভাযাত্রার মুখোশ ধারণ করে বিপুল সংখ্যক বাঙালি অটোয়ার রাজপথে বর্ণাঢ্য র‌্যালিতে অংশগ্রহণ করে। কানাডার জন্মদিবসে বহুজাতিক সংস্কৃতির মিছিলে প্রবাসী বাঙ্গালির আনন্দঘন অংশগ্রহণ বিপুল গৌরবের বাঙ্গালিপনায় মশগুল করে রাখে বহুজাতিক সংস্কৃতির কানাডার জন্মদিবিসেরউৎসবকেন্দ্র অটোয়ার পার্লা্মেন্ট চত্বর।  ‘বাংলা ক্যারাভান” রাজধানী অটোয়ায় নৃ্তাত্ত্বিক বাঙালির আত্মপরিচয় নির্মাণের বাতিঘর হিসেবে বাংলাদেশ, পশ্চিমবঙ্গ, ত্রিপুরা, আসাম-যে অঞ্চল থেকেই আসা হোক না কেন, নৃ্তাত্তিক জাতিসত্বায় সবাই এখন ক্যানাডিয়ান বাঙালি কিংবা বিশ্ববাঙালি -এই সত্যটাই প্রমাণ করে। ভাষা,সংস্কৃতি, আচার, লোকাচারে  সকলেই একই সুতোয় গাঁথা। এই দেশে প্রবাসিদের ঐতিস্যময় বাঙালি সংস্কৃতি ও কৃষ্টির যথাসম্ভব আয়োজন নিয়ে বাংলা ক্যারাভান করে শোভাযাত্রা রাজধানী অটোয়ার রাজপথে। এই শহরের অভিবাসী বাঙালি সমাজসহ যেসব বাঙালি আসেন অন্যান্য পাশ্ববর্তী শহরগুলো থেকে ক্যানাডা দিবসেরমুলধারার জমকাল অনুষ্ঠানাদি উপভোগ করতে, তাঁদের সকলের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করে বাংলা ক্যারাভান বাঙালির এই আনন্দ উৎসবের মঙ্গল শোভাযাত্রায়।গত বছরের সাফল্যময়তারই ধারাবাহিকতায় বাংলা ক্যাCanada day02রাভান নামের এই অসাম্প্রদায়িক সংগঠনটি সকল বাঙ্গালির কোলাহলে বা অংশগ্রহণে এবারের আয়োজনে যোগকরে বহুবিধ বর্ণিল মাত্রা। কানাডা দিবসে এদেশের বহুধা সংস্কৃতির মূলধারায় বাঙ্গালিরা এই বছরে যোগ করে বাঙালি সংস্কৃতি আর লোকমানসের গৌরবময় কিছু মহার্ঘ। ‘বাংলা ক্যারাভান’ নৃতাত্ত্বিক বাঙ্গালির প্রাণের মেলা, কানাডা দিবসের  র‌্যালিতে সকল বাঙ্গালির সরব অংশগ্রহণ নিশ্চিত করে বাংলা ক্যারাভান তুলে ধরেবাঙালির গর্বিত সংস্কৃতি-কৃষ্টির ঐতিহ্য ধাত্রীভূমি কানাডার মূলধারায়। বাংলা ক্যারাভান অভিবাসী বাঙ্গালির ঘরেঘরে বেড়েওঠা নতুন প্রজন্মের মানস-মননে বাঙালির প্রাণের কৃষ্টিকে লালন করার উৎসাহ যোগানোর আহ্বান জানান সকলের প্রতি। বাংলা ক্যারাভানে’র বর্ণাঢ্য র‌্যালিটি মূলধারার মানুষরা হাততালি এবং গাড়ির হর্ণ বাঁজিয়ে অভিনন্দন জানান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here