বাজেট অধিবেশনে ৬০ ঘন্টা ৫০ মিনিট আলোচনা

0
46

sangsad_114852-1জাতীয় সংসদের ১১তম অধিবেশন অর্থাৎ বাজেট অধিবেশন শেষ হয়েছে। বুধবার স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী এ সংক্রান্ত রাষ্ট্রপতির নির্দেশ পড়ে শোনান। তার আগে সংসদের বিরোধী দলীয় নেতা বেগম রওশন এরশাদ ও সংসদ নেতা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সমাপনী বক্তব্য দেন।

এই অধিবেশন ছিল চলতি বছরের তৃতীয় অধিবেশন। এই অধিবেশনের কার্যদিবস ছিল ৩২টি। বাজেটের ওপর মোট ৬০ ঘন্টা ৫০ মিনিট আলোচনা হয়েছে। এর মধ্যে মোট বাজেটের উপর ৫৯ ঘন্টা ১৪ মিনিট এবং সম্পূরক বাজেটের উপর ১ ঘন্টা ৩৬ মিনিট আলোচনা হয়।

মূল বাজেটের উপর আওয়ামী লীগের ১৭৬ জন, ওয়ার্কার্স পার্টির ৭ জন, তরিকত ফেডারেশনের ১ জন, জাতীয় পার্টির ৩৫জন, জাতীয় পার্টি (জেপি) ১ জন, বিএনএফ ১ জন এবং স্বতন্ত্র ১১ জন বক্তব্য রাখেন।

এই অধিবেশনে ২৭টি সরকারি বিলের মধ্যে ১৬টি পাস হয়। আইন প্রণয়ন সম্পর্কিত কাজ সম্পাদনের পাশাপাশি কার্যপ্রণালী-বিধির ৭১ বিধিতে ১৯৩ টি নোটিশ পাওয়া যায়। নোটিশগুলো হতে ১২টি নোটিশ গৃহীত হয় এবং গৃহীত নোটিশের মধ্যে ২টি নোটিশ সংসদের বৈঠকে আলোচনা হয়। ৭১ বিধিতে দুই মিনিটের আলোচিত নোটিশের সংখ্যা ৫৬টি।

এই অধিবেশনে প্রধানমন্ত্রী উত্তর দেয়ার জন্য সর্বমোট ২৩১টি প্রশ্নের নোটিশ পাওয়া যায়। এর মধ্যে ৯১টি প্রশ্নের উত্তর দেন তিনি। বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রীদের উত্তরদানের জন্য প্রাপ্ত মোট ৪ হাজার ১৮৪ টি প্রশ্নের নোটিশের মধ্যে মন্ত্রীরা ৩ হাজার ৪৭১টি প্রশ্নের জবাব দেন।

প্রসঙ্গত, পহেলা জুন এই অধিবেশন শুরু হয়েছিল। পরদিন ২ জুন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত চলতি অর্থবছরের বাজেট পেশ করেন। ৩০ জুন বাজেট পাস হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here