গোরক্ষার নামে জুলুমের নিন্দায় মোদী

0
122

39700-modidigitalআন্তর্জাতিক ডেস্ক: দীর্ঘ নীরবতা ভেঙে গোরক্ষা ইস্যুতে মুখ খুললেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এ দিন ইন্দিরা গাঁন্ধী স্টেডিয়াম কমপ্লেক্সে জনতার মুখোমুখি হয়ে গোরক্ষার নামে সাধারণ মানুষের ওপর জুলুমের কড়া নিন্দা করলেন মোদী। সম্প্রতি দেশের কয়েকটি জায়গায় গোরক্ষার অজুহাতে মারধর, জুলুমবাজির অভিযোগের আঙুল উঠেছে বিজেপি ও সঙ্ঘ পরিবারের কয়েকটি সংগঠনের দিকে।

কেন্দ্রীয় তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদের সূচনা করা অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী পরিষ্কার বলেন, ‘‘যখন দেখি গোরক্ষার নামে লোকে দোকান খুলে বসেছে, তখন ভীষণ রাগ হয়।’’ গোরক্ষার নাম করে যারা সমাজবিরোধী কাজকর্মে লিপ্ত, তাদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নিতে চান তিনি।

সরকার এবং নাগরিকদের সঙ্গে সংযোগ তৈরির কর্মসূচি মাইগভ-এর দ্বিতীয় বর্ষপূর্তিতে আয়োজিত অনু্ষ্ঠানে মোদী বলেন, ‘‘যাঁরা সমাজসেবা, গোরক্ষা করতে চান, গরু যাতে প্লাস্টিক, বর্জ্যপদার্থ না খায় তাঁরা বরং আগে সে দিকটায় খেয়াল রাখুন।’’

গত মাসেই প্রধানমন্ত্রীর নিজের রাজ্য গুজরাতের উনায় মৃত গরুর চামড়া ছাড়ানোর জন্য দলিতদের উপর অকথ্য অত্যাচার চালানো হয়েছিল। এমনকী, মানুষের মধ্যে ভয় ধরিয়ে দিতে সেই ঘটনার ভিডিও অনলাইনে ছেড়ে দেওয়া হয়েছিল। এই ঘটনায় নিন্দার ঝড় বয়ে গিয়েছিল দেশজুড়ে। কয়েক দিন আগে মধ্যপ্রদেশের নিমাচে ব্যাগে গোমাংস আছে, এই সন্দেহে দু’জন মুসলিম মহিলাকে মারধর করা হয়। কিন্তু এই ঘটনার পরেও নীরব ছিলেন প্রধানমন্ত্রী। এ ধরনের স্বঘোষিত গো-প্রেমীদের বিরুদ্ধে মোদী কেন কোনও কথা বলছেন না, এই অভিযোগও তুলেছিল বিরোধীরা। আজই প্রথম বারের জন্য এ বিষয়ে কড়া ভাষায় মুখ খুলে মোদী বুঝিয়ে দিলেন, তিনি এ ধরনের আচরণের বিরোধী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here