নিউইয়র্কের এডিরনডেক পার্ক- একটি পারফেক্ট ভ্রমণ প্যাকেজ (পর্ব-২)

0
28
hiking-elopement-in-kananaskis-by-one-edition-photography-2নিউইয়র্কের উত্তরে এর অবস্থান। এডিরনডাক পার্ক দেশটির একটি জনপ্রিয় আকর্ষণ। চমৎকার প্রকৃতিকে সুরক্ষিত করতে বিশাল এলাকাকে আনা হয়েছে পার্কের আওতায়। প্রায় ৬ মিলিয়ন একর বা ২.৫ মিলিয়ন হেক্টর জায়গা জুড়ে পার্কটি বিস্তৃত। মজার ব্যাপার হল পার্কটির প্রায় ৫২ শতাংশই ব্যক্তিগত মালিকানাধীন। সম্পূর্ণ এলাকায় শত শত শহর এবং গ্রাম রয়েছে। সব মিলিয়ে ১ লক্ষ ৩২ হাজার মানুষের বাস এখানে।
১৮৯২ সালে পার্কটির স্থাপনা করে নিউ ইয়র্ক স্টেট এবং তখন থেকে এটি যুক্তরাষ্ট্রের সবচেয়ে বড় জনবসতি দ্বারা সংরক্ষিত এলাকা। প্রতিবছর ১০ মিলিয়ন ট্যুরিস্ট আসে এখানে। আপনি যদি এখনও চমৎকার এই জায়গাটি ভ্রমণ না করে থাকেন তাহলে পরবর্তী ভ্রমণেই এর নাম রাখুন। আসুন জেনে নিই, কেন বেড়াতে যাবেন এখানে।
 
Fort Ticonderoga
তিহাস ভালবাসেন যারা তারা কোনভাবেই মিস করবেন না এই দূর্গটি। ১৭৫৫ সালে ফরাসীরা এই দূর্গ নির্মাণ করে। এটি সম্পূর্ণ পাথরের তৈরি একটি দূর্গ। উত্তর আমেরিকার সবচেয়ে পুরাতন এবং তাৎপর্যপূর্ণ স্থাপনাগুলোর মাঝে এটি অন্যতম। দূর্গটি সেই সময়ের ইতিহাস তুলে ধরে যখন ব্রিটেন এবং ফ্রান্সের আধিপত্য ছিল এখানে।
 
অপূর্ব উদ্ভিদজগৎ
বিচিত্র বনাঞ্চলের অনেক অংশেই এখনও মানুষের পা পরে নি। বসন্তে, গ্রীষ্মে স্থানীয় পথ-ঘাট, মাঠ, বন ফুলে ফুলে রঙিন হয়ে ওঠে। শরতে অসংখ্য পর্যটক আসে এখানে রঙিন পাতা ঝরার প্রাকৃতিক উৎসবে যোগ দিতে।
শিপরেক ডাইভিং
এডিরনডেক পার্ক সবার জন্যই রেখেছে কিছু না কিছু আয়োজন। রোমাঞ্চপ্রিয় ডাইভাররা চমৎকার থ্রিলিং অভিজ্ঞতা নিতে পারবেন এখানে। কানাডিয়ান বর্ডারে এডিরনডেক সমুদ্রপথের কাছে সানকেন শিপরেক এ ডাইভিং হতে পারে আপনার জীবনের সবচেয়ে স্মরণীয় ডাইভিং অভিজ্ঞতাগুলোর অন্যতম।
জাদুঘর
এডিরনডেক পার্কে চমৎকার সব জাদুঘরে ঘুরে বেড়াতে পারবেন আপনি। এডিরনডেক মিউজিয়ামটি পার্কের একেবারে মাঝে অবস্থিত। আভ্যন্তরীণ এবং বাহ্যিক উভয় প্রকার প্রদর্শনী মুগ্ধ করবে আপনাকে।
লেক প্লাসিড
এডিরনডেক পার্কের কেন্দ্রে অবস্থিত লেক প্লাসিড যেন পার্কটির প্রাণ। লেকটিকে ঘিরে গড়ে উঠেছে ২৫০০ মানুষের বসতি। ছবির মত সুন্দর লেকটি ১৯৩২ সাল এবং ১৯৮০ সালের দুইটি ঐতিহাসিক শীতকালীন অলিম্পিক আয়োজনের জন্য বিখ্যাত। প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্য উপভোগের পাশাপাশি এখানে স্কি জাম্প, বব স্লেই দৌড় এবং আইস হকি রিঙ্কস এর ব্যবস্থা রয়েছে।
Forty-Sixers
নানান রকম চমৎকার অভিজ্ঞতার মাঝে হাইকিং এর অভিজ্ঞতাই বা বাদ যাবে কেন? বরং পার্কটি হাইকারদের বিশেষভাবে পছন্দের। আপনি এখানে ফর্টি-সিক্সার ক্লাবের মেম্বার হতে পারবেন। এই ক্লাবটি খুবই খ্যাতিসম্পন্ন এবং এর সদস্য হওয়া মর্যাদার ব্যাপার। এই নামের কারণ হল এটি সেইসব হাইকারদের ক্লাব যারা এডিরনডেকের ৪৬টি সর্বোচ্চ পিক জয় করেছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here