আভিজাত্যপূর্ণ ভ্রমণের জন্য চমৎকার বাহামাস (পর্ব-১)

0
605
snorkelling-in-old-bahama-bayসমুদ্রপ্রেমী মানুষেরা জানেন সমুদ্রের নীলের কী আকর্ষণ! একই পৃথিবী, তার বুকে বিস্তৃত জলরাশির খেলা কখনো যেন এক নয়। একই বিচে যেন একই জলের জোয়ার বয় না রোজ! প্রতি বেলার নীল যেন বদলে যায়, নেয় ভিন্ন রূপ। আর বিচ ভিন্ন হলে তো কথাই নেই। তাই সমুদ্রকে যারা ভালবাসেন সমুদ্রের টানে তারা ছুটে যান এক দেশ থেকে অন্য দেশে, এক দীপ থেকে অন্য দ্বীপে।
বাহামাস। মিহি বালুকাবেলা আর নীল জলের মায়াবি খেলায় ঘেরা একটি দেশ। এক সময়ের জলদস্যুদের স্বর্গ ছিল জায়গাটি। বর্তমানে ভ্রমণ পিপাসু মানুষ যারা মাছ ধরা, ডাইভিং, সেইলিং করতে ভালবাসেন তাদের জন্য জনপ্রিয় একটি গন্তব্যে পরিণত হয়েছে এটি। এখানে সমূদ্রকে উপভোগ করতে অবশ্যই ঘুরে আসুন এই জায়গাগুলোতে-
 
আটলান্টিস প্যারাডাইস আইল্যান্ড
বিলাসিতার সকল আয়োজনে পূর্ণ এই হোটেলটি। অভিজাত হোটেলরুম, ওয়াটার পার্ক, বিনোদন কমপ্লেক্স কি নেই এখানে! হোটেলের অতিথিরা বিনামূল্য জনপ্রিয় ১৪১ এডভেঞ্চারে প্রবেশ করতে পারবেন। বিশাল এই অঞ্চলে রয়েছে নানান মজার আয়োজন। দেখা হবে সামুদ্রিক নানান প্রাণী যেমন হ্যামারহেড শার্ক এর সাথে। কেনাকাটা, রেস্টুরেন্ট ইত্যাদি সুবিধা তো রয়েছেই। এ যেন আদিম সমুদ্রের সাথে আধুনিক সভ্যতার মিতালি।
নাসাউ
ক্যারাবিয়ানদের একটি জনপ্রিয় জাহাজ পোর্ট নাসাউ। মানুষের ভিড়ে ভারাক্রান্ত হলেও জায়গাটি এখনো পর্যটক আকর্ষণ হারায় নি বিন্দুমাত্র। ক্যাবল বিচের সাদা বালি আকর্ষণ করে ভ্রমণপিপাসুদের। এখানে বিচ ছাড়াও ঘুরে দেখার মত আছে অনেক কিছু। কেনাকাটা করতে পারেন, রেস্টুরেন্টে স্বাদ নিতে পারেন স্থানীয় খাবারের, যাদুঘরগুলোয় ঘুরে আস্তে পারেন, দেখতে পারেন ডাউনটাউন এবং বে স্ট্রিটের ক্যান্ডি রঙের কলোনিয়াল বাড়িগুলো। পশুপ্রেমীরা ব্লু লাগুন আইল্যান্ড এ ডলফিনদের সাথে কাটিয়ে আসুন একটি দিন।
Exuma Cays Land and Sea Park
বাহামাসের পূর্ব দিকে “no take zone” হিসেবে রয়েছে Exuma Cays Land and Sea Park। এটি একটি সংরক্ষিত এলাকা। পার্কটির অন্তর্গত সমূদ্র সীমায় শ্বাস্রুদ্ধকর সুন্দর সব দৃশ্যের দেখা মেলে। স্বচ্ছ নীল জলের নীচে সাদা বালিতে প্রতিফলিত হয় সূর্যের আলো। পানির রঙ এত স্বচ্ছ যে আপনি এর তলের সব কিছুই দেখতে পাবেন। ভেসে চলা মাছেরা পানিতে ভাসছে নাকি উড়ে বাড়াচ্ছে বোঝা দায়! ডাইভিং এর জন্য জায়গাটি বিশেষ জনপ্রিয়। সুন্দর আবহাওয়ায় এখানে স্নোরকেলিং করে আপনি ৩০ কিলোমিটার পর্যন্ত দেখতে পাবেন তেমনি স্পস্ট যেমনি দেখতে পান পানির ওপরে। তবে এখানে মাছ ধরা সম্পূর্ণ নিষেধ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here