ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলামনাই‘র ‘সম্মিলিত একুশ’ আয়োজনের যৌথ সভা অনুষ্ঠিত

0
245

111_69856নিউইয়র্ক: গত ২ ডিসেম্বর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলামনাই এসোসিয়েশনের উদ্যোগে প্রবাসের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় এলামনাই এবং সাংস্কৃতিক সংগঠনের এক যৌথ সভা জ্যাকসন হাইটসের ইত্যাদি রেস্টুরেন্টের পার্টি হলে অনুষ্ঠিত হয়। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলামনাই এসোসিয়েশনের সভাপতি এ.কে.আজাদ তালুকদারের সভাপতিত্বে এবং সাধারন সম্পাদক গাজী সামসউদ্দীনের পরিচালনায় সভায় উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলামনাই এসোসিয়েশনের মোহাম্মদ হোসেন খান, মোল্লা মনিরুজ্জামান, তাজুল ইসলাম, স্বপন বড়–য়া, এম.এস. আলম, এ্যানি ফেরদৌস, মহিউদ্দীন দেওয়ান, মো: হানিফ মজুমদার প্রমুখ। সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় এলামনাই এসোসিয়েশনের সহ সভাপতি আব্দুল আজিজ নঈমী, জাহাঙ্গীর নগর বিশ্ববিদ্যালয় এলামনাই এসোসিয়েশনের সভাপতি আকতার আহমেদ রাশা, শেরে বাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় এলামনাই এসোসিয়েশনের সভাপতি সৈয়দ মিজানুর রহমান। সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিপার এ্যানি ফেরদৌস, বাফার সভাপতি ফরিদা ইয়াসমিন, উদিচির সাধারন সম্পাদক জীবন বিশ্বাস এবং বহ্নিশিখা সঙ্গীত নিকেতনের সভাপতি সবিতা দাস।

সভায় বক্তারা আগামী ২১শে ফেব্রুয়ারী ২০১৭’র অনুষ্ঠানকে কিভাবে অন্যান্য বছরের তুলনায় আরও সুন্দর ও সফলভাবে উপহার দেওয়া য়ায় তার বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন। সম্মিলিত একুশ উদযাপন পরিষদ সর্বসম্মতিক্রমে এবারের সাংস্কৃতিক উপ পরিষদের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব দেওয়া হয় সঙ্গীত পরিষদের সভাপতি কাবেরী দাশকে।

শিশু কিশোরদের বিভিন্ন প্রতিযোগিতা পরিচালনার জন্য জাহাঙ্গীর নগর এলামনাই’র সভাপতি আকতার আহমেদকে আহ্বায়ক এবং শেরে বাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় এলামনাই এর সভাপতি জনাব সৈয়দ মিজানুর রহমানকে সদস্য সচিবের দায়িত্ব দেওয়া হয়। এই অনুষ্ঠানটি আরও সুন্দর ও সার্থক করে তোলার জন্য স্বপন বড়–য়াকে সমন্বয়কের দায়িত্ব দেওয়া হয়।
সভায় প্রবাসের সকল সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও আঞ্চলিক সংগঠন সমূহকে যত দ্রুত সম্ভব তাদের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করার জন্য রেজিষ্ট্রেশন করার আহ্বান জানানো হয়।

সভায় শিশু- কিশোরদের প্রতিযোগিতার বিষয়াবলী এবং স্থান পত্রিকায় বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে যথাসময়ে জানানো হবে।- বিজ্ঞপ্তি

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here