বাংলাদেশের গণহত্যার আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি না পাওয়াটা লজ্জার : লেয়ার লেভিন

0
203

layer-levin-2016-bijoyবর্ণমালা ডেস্ক : বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম বন্ধু মার্কিন চলচ্চিত্র নির্মাতা লেয়ার লেভিন বলেছেন, বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে পাকিস্তানীরা যে বর্বরতা চালিয়েছে হলোকাষ্টের পর এমন বর্বরতা আর কোথাও হয় নি। তা সত্বেও ৭১ এ বাংলাদেশে সংঘটিত গণহত্যা আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি পায়নি। এটি অত্যন্ত লজ্জার।
লেয়ার লেভিন শনিবার (১৭ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় ডেনফোর্থের মিজান কমপ্লেক্স অডিটরিয়ামে টরন্টো ফিল্ম ফোরাম আয়োজিত নৈশভোজে বক্তৃতাকালে এই কথা বলেন।
কানাডা প্রবাসী বাংলাদেশি চলচ্চিত্র নির্মাতাদের সংগঠন ‘টরন্টো ফিল্ম ফোরাম’ আজ রোববার (১৮ ডিসেম্বর) ৯ ডজ রোডের রয়্যাল কানাডীয়ান লিজিয়ন হলে তাকে সম্মাননা দিচ্ছে। এই উপলক্ষে তিনি বর্তমানে টরন্টো সফরে রয়েছেন।
নৈশভোজে ফিল্ম ফোরামের আহ্বায়ক এনায়েত করীম বাবুল বাংলাদেশের অন্যতম বন্ধু এই চলচ্চিত্র নির্মাতাকে স্বাগত জানান। নিউজার্সি থেকে আসা বীর মুক্তিযোদ্ধা ড. নুরুন্নবী এই সময় মুক্তিযুদ্ধে লেয়ার লেভিনের ভূমিকা তুলে ধরে বক্তব্য রাখেন। চলচ্চিত্র নির্মাতা মনীষ রফিক সবাইকে ধন্যবাদ জানান। নৈশভোজে ফিল্ম ফোরামের কর্মকর্তারা ছাড়াও লেখক সাংবাদিক এবং বিশিষ্ট ব্যক্তিরা অংশ নেন।
লেয়ার লেভিন বলেন, আমেরিকা সেই সময় পাকিস্তানকে সমর্থন এবং অস্ত্র সরবরাহ করেছে। সেই অস্ত্র দিয়েই পাকিস্তানীরা বাংলাদেশের নিরীহ মানুষদের হত্যা করেছে। কিন্তু আমেরিকান নাগরিকরা এই বর্বরতাকে সমর্থন করেনি। তিনি বলেন, তিনি এবং তার স্ত্রী মার্কিন সরকারের অবস্থানের বিরুদ্ধে রাস্তায় আন্দোলন করেছেন। পরে তিনি তার চলচ্চিত্রের ক্রুদের নিয়ে যুদ্ধময়দানে চলে যান। তিনি সুধীজনদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন।
মার্কিন চলচ্চিত্র নির্মাতা লেয়ার লেভিন ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের সশস্ত্র মুক্তিযুদ্ধের সময় পাকিস্তানী হানাদার বাহিনীর নির্মম গণহত্যার চিত্রায়ন করেন। তার গৃহীত ফুটেজ ব্যবহার করেই পরবর্তীতে মুক্তিযুদ্ধ ভিত্তিক বেশ কয়েকটি বাংলা চলচ্চিত্র নির্মিত হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here