প্রবাসীদের বিভিন্ন সমস্যা সমাধানে আশাবাদ খাদ্যমন্ত্রীর

0
79

02082017_12_KAMRUL_ISLAMগত ৬ ফেব্রুয়ারী ২০১৭, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় খাদ্য মন্ত্রী এডভোকেট কামরুল ইসলাম, অষ্ট্রেলিয়াতে (এবং নিউজিল্যান্ডে, ফিজিতে) নিযুক্ত বাংলাদেশের মাননীয় হাইকমিশনার জনাব কাজী ইমতিয়াজ হোসেন সহ ৮ সদস্যের একটি সরকারী প্রতিনিধি দল নিয়ে ২ দিনের সফরে অকল্যান্ডে আসেন। অকল্যান্ড আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে মাননীয় খাদ্য মন্ত্রী, বাংলাদেশের মাননীয় হাইকমিশনার সহ সরকারী প্রতিনিধি দলকে অভ্যর্থনা জানিয়ে ফুল দিয়ে বরন করেন অকল্যান্ডে বাংলাদেশের অনারারী কনসাল প্রকৌশলী সফিকুর রহমান ভূইঁয়া (অনু) সহ নিউজিল্যান্ডে স্থানীয় বঙ্গবন্ধু পরিষদের নেতৃবৃন্দ এবং নিউজিল্যান্ডের বাঙ্গালী কমুনিটির নেত্রীস্থানীয় ব্যক্তিবর্গ।

এরপর গত ৬ ফেব্রুয়ারী ২০১৭, সোমবার রাতে নিউজিল্যান্ডের অকল্যান্ডে দায়িত্বপ্রাপ্ত বাংলাদেশের অনারারী কনসাল প্রকৌশলী সফিকুর রহমান ভূইঁয়া (অনু)র উদ্যোগে উনার বাসভবনে নিউজিল্যান্ডে সফররত মাননীয় খাদ্য মন্ত্রী এডভোকেট কামরুল ইসলাম সহ উনার সকল সফর সঙ্গীদের সম্বর্ধনা প্রদান করা হয় এবং প্রবাসী বাঙ্গালিদের সর্বস্থরের প্রতিনিধিদের সাথে এক সৌজন্য মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

উল্লেখযোগ্য যে নিউজিল্যান্ডের মাটিতে এবারই প্রথম বাংলাদেশের কোন মন্ত্রীকে সরকারী ভাবে বাংলাদেশ কনসুলেট এর উদ্যোগে সম্বর্ধনা দেওয়া হয়।নিউজিল্যান্ডে সর্বস্তরের প্রতিনিধিত্ত্বকারী প্রবাসী ব্যক্তিবর্গ মাননীয় খাদ্য মন্ত্রী ও হাইকমিশনার মহোদয়ের নিকট বাংলাদেশ সরকারের নানাবিধ উন্নয়ন সম্পর্কে বিভিন্ন বিষয় জানতে চান, এবং একই সাথে তারা যাতে প্রবাসে থেকেও দেশের উন্নয়ন প্রক্রিয়ায় অবদান রাখতে পারেন – সে বিষয়ে সুযোগ ও সুবিধা সুষ্টির অনুরোধ করেন।

মাননীয় খাদ্য মন্ত্রী তার সুন্দর বক্তব্যে বাংলাদেশ সরকারের গৃহীত বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকান্ড তুলে ধরে প্রবাসে থেকেও দেশের জন্য সকলকে কাজ করার অনুরোধ করেন। মাননীয় মন্ত্রী আরো বলেন যে, বাংলাদেশে নিউজিল্যান্ডের দূতাবাস না থাকাতে এবং নিউজিল্যান্ডেও বাংলাদেশের কোন দূতাবাস না থাকাতে –প্রবাসীদের অনেক বিড়ম্বনায় পড়তে হয় বলে স্বীকার করেন। তবে প্রবাসীদের যে কোন সমস্যা সমাধানে জন নেত্রী শেখ হাসিনার সরকার অনেক আন্তরিক এবং সচেষ্ট।

মাননীয় হাইকমিশনার তার বক্তব্যে বলেন যে, বর্তমানে নিউজিল্যান্ডের সাথে বাংলাদেশের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক আরো সুদৃঢ়করণে বর্তমান সরকার কাজ করে যাচ্ছে। তিনি আরো বলেন যে প্রবাসীদের সমস্যা সমাধানে তাঁর দূতাবাস বিশেষভাবে যত্নশীল এবং প্রবাসীদের জন্য সেবার মান আরো কিভাবে বাড়ানো যায় তা নিয়ে সরকারের সাথে তিনি কাজ করে যাচ্ছেন।

মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে মাননীয় মন্ত্রী মহোদয়ের স্ত্রী মিসেস তায়েবা ইসলামসহ আরো উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ফুড সেফটি অথোরিটির চেয়ারম্যান ও অতিরিক্ত সচিব জনাব মাহফুজুল হক, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের ডাইরেক্টর জেনারেল জনাব শেখ মো. ইউসুফ হারুন, বাংলাদেশ ফুড সেফটি অথোরিটির সদস্য অধ্যাপক ড. ইকবাল রউফ মামুন সহ সরকারী উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাবৃন্দ।

স্থানীয় নিউজিল্যান্ড বঙ্গবন্দু পরিষদের পূর্ণ সহযোগিতায় অনুষ্ঠিত এই সুন্দর ও সফল মত বিনিময় অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন অনারারী কনসাল প্রকৌশলী সফিকুর রহমান ভূইঁয়া (অনু)। উক্ত সভায় বক্তব্য রাখেন নিউজিল্যান্ড বঙ্গবন্ধু পরিষদের সাধারণ সম্পদক প্রকৌশলী রনি, বাকসুর সাবেক ভিপি আব্দুস সালাম, সাউথ আইল্যান্ড বঙ্গবন্ধু পরিষদের সভাপতি ও ঢাকা বিশ্বাবদ্যালয়ের শিক্ষক মাহবুব লিটু, ক্রাইস্টর্চাচ এর মাহবুব রাজু, তাওরাংগা আওয়ামী লীগের সভাপতি কৃষিবিদ মোয়াজ্জেম হোসেন ভূইঁয়া, ডাক্তার পারভীন, জনাব আতিয়ার লাভলু, ডঃ এরশাদ, ডাক্তার বশীর, শফিকুর রহমান, ডেন্টিস্ট শফিক, রাজীব হাসান প্রমুখ।

উপস্থিত সরকারী অতিথিবৃন্দদেরকে স্মারক উপহার তুলে দেন নিউজিল্যান্ডে বঙ্গবন্ধু পরিষদের সভাপতি প্রকৌশলী নুর জাহাঙ্গীর শেলী সহ পরিষদের নেতৃবৃন্দ। সব শেষে সাবেক মন্ত্রী ও দক্ষ পারলামেন্টারিয়ায়ান সদ্যপ্রয়াত সুরঞ্জিত সেন এমপির আত্মার শান্তি কামনা করে, উপস্থিত অতিথিবৃন্দকে এবং নিউজিল্যান্ড বঙ্গবন্ধু পরিষদের নেতৃবৃন্দদেরকে বিশেষ ধন্যবাদ জ্ঞাপন করে – সকলকে নৈশ ভোজে আপ্যায়িত করেন বাংলাদেশের অনারারী কনসাল প্রকৌশলী সফিকুর রহমান ভূইঁয়া (অনু) এবং মিসেস মাহবুবা আজিজ খান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here