বাংলাদেশ, সৌদি আরব-ইসরাইলসহ ৪১ দেশে আমেরিকানদের জন্য নতুন ভ্রমন সতর্কতা

বর্ণমালা নিউজ: আমেরিকার নাগরিকদের জন্য জারীকৃত ৯ সেপ্টেম্বর ২০১৬ সালের ভ্রমণ সতর্কতাকে আপডেট করে নতুন সতর্কতা (ওয়াল্ড ওয়াইড কোশন) জারী করেছে ইউএস স্টেট ডিপার্টমেন্ট। এতে ইসরাইলের নামও যেমন আছে তেমনি সৌদি আরবের সাথে সাথে বাংলাদেশের নামও রয়েছে। আরও রয়েছে পাশের দেশ মেক্সিকোর নাম। বিশ্বব্যাপী সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ও সম্ভাবনাকে সামনে রেখে বিভিন্ন মহাদেশের ৪১ দেশে আমেরিকার নাগরিকদের ভ্রমণে সতর্ক হয়ে চলাফেরার এই নির্দেশকে কোন কোন মিডিয়া ‘নিষেধাজ্ঞা’ হিসেবে লিখে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করছে।

৬ মার্চ জারীকৃত নতুন সতর্কতা নির্দেশে কোন কোন দেশে আমেরিকার কূটনৈতিকদের সাধবান হয়ে চলাচল করতে বলা হলেও বাংলাদেশের বেলায় তা বলা হয়নি।

ছয়টি মুসলিমপ্রধান দেশের ওপর ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা আরোপের সাথে এই সতর্কতা জারীর কোন সর্ম্পক নেই। অথচ কোন মিডিয়া একে ছয়টি মুসলিমপ্রধান দেশের ওপর ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞার সাথে জড়িয়ে সংবাদ প্রকাশ করছে। কিন্তু তারা পূর্ণাঙ্গ তালিকার কথা বলছে না এবং এতে যে আমেরিকার সবচেয়ে ঘনিষ্ট মিত্র দেশ সৌদি আরব ও ইসরাইলের নামও রয়েছে তাও জানাচ্ছে না। এই সতর্কতায় পড়েছে ইসরাইলের গাজা ও পশ্চিম উপত্যকা অঞ্চল। আরো আছে মিশর, পাকিস্তান, মেক্সিকো, হাইতি, সিরিয়া, লেবানন, জর্ডান, লিবিয়া, তিউনিসিয়া, কলম্বিয়া, এল সালভাদর, হন্ডুরাস, ভেনেজুয়েলা, ইয়েমেন, ইরান, আলজেরিয়া, সুদান, সাউথ সুদান, সোমালিয়া, নাইজেরিয়া, নাইজার, মৌরিতানিয়া, মালি, কেনিয়া, ইথুপিয়া, ইরিত্রিয়া, কঙ্গো, শাদ, সেন্টাল আফ্রিকা, ক্যামেরুন, বুরুন্ডি, বুরকিনো ফাসো, নর্থ কোরিয়া ও ফিলিপিন্স।
ভ্রমণ সতর্কতায় দক্ষিণ ও মধ্য এশিয়া অঞ্চলের বাংলাদেশ, পাকিস্তান ও আফগানিস্তান প্রসঙ্গে সর্তকতা জারীর অংশে তালিকায় ভারতের নাম যুক্ত না করেও বলা হয় ‘ভারতেও সন্ত্রাসী কার্যকলাপ সক্রিয়’।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here