ব্যথা কমিয়ে দেবে প্রাকৃতিক এই ৭ পেইন কিলার

0
203

বিভিন্ন কারণে হাত-পায়ে ব্যথা হতে পারে। মাথাব্যথা তো যেকোনো সময় শুরু হতে পারে। আবার একটু বেশি হাঁটলেন শুরু হতে পারে পা ব্যথা। যেকোনো ব্যথা থেকে মুক্তি পাবার জন্য আমরা পেইনকিলারের শরণাপন্ন হয়ে থাকি। কিন্তু এই পেইনকিলার শরীরের জন্য বেশ ক্ষতিকর। এই পেইনকিলার খাওয়ার পরিবর্তে খেতে পারেন কিছু প্রাকৃতিক উপাদান। যা আপনার ব্যথা কমিয়ে দেবে। আর এই উপাদানগুলো আপনার রান্নাঘরে মজুদ আছে! এমন কিছু প্রাকৃতিক পেইন কিলারের সাথে পরিচিত হওয়া যাক।

১। হলুদ

প্রাকৃতিকভাবে ব্যথা কমাতে হলুদ বেশ উপকারী। এর অ্যান্টি ইনফ্লামেটরি উপাদান ব্যথা কমিয়ে থাকে। গবেষণায় দেখা গেছে, হলুদে থাকা উপাদান অস্টিওআর্থারাইটিসের ব্যথা কমাতে সাহায্য করে।

২। আদা

এক গবেষণায় দেখা গেছে আদা পেট ব্যথা, বাতের ব্যথা দূর করতে বেশ কার্যকরী। গরম পানিতে আদা কুচি দিয়ে জ্বাল দিন। এটি বরফের ছাঁচে ঢেলে দিন। তারপর আদা পানির বরফ সারাদিন খান। এটি পেটের ব্যথা কমিয়ে দিবে।  গর্ভকালীন সময় অথবা সার্জারির পর আদা বেশ কার্যকর।

৩। রসুন

এক গ্লাস কুসুম গরম পানিতে ছয় কোয়া রসুন কুচি মিশিয়ে নিন। এটি দিয়ে দিনে দুইবার কুলকুচি করুন। দেখবেন গলা ব্যথা গায়েব হয়ে গেছে। রসুনের অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল উপাদান ব্যথানাশক। তা ব্যাকটেরিয়া দূর করে দেয়।

৪। লাল আঙ্গুর

লাল আঙ্গুর ব্যথা কমাতে খুব পরিচিত কোনো মাধ্যম না হলেও, এটি বেশ কার্যকর।  এতে রেসভারাট্রোল নামক অ্যান্টি অক্সিডেন্ট উপাদান রয়েছে যার কারণে আঙ্গুর লাল হয়ে থাকে। এটি কোমর ব্যথা কমাতে সাহায্য করে।

৫। অ্যাপেল সাইডার ভিনেগার

এক গ্লাস পানিতে এক চামচ অ্যাপেল সাইডার ভিনেগার মিশিয়ে নিয়মিত পান করুন। এটি বুক জ্বালাপোড়া দূর করে বুক ব্যথা কমিয়ে দেয়।

৬। ফিশ অয়েল

ফিশ অয়েল অ্যান্টি ইনফ্লামেটরী উপাদানসমৃদ্ধ। গবেষণায় দেখা যে যেসব ঘাড় এবং পিঠের ব্যথার রোগীদের দিনে ১২০০ মিলিগ্রাম ফিশ অয়েল সাপ্লিমেন্টারি খাওয়ানো হয়েছে তাদের অর্ধেক বেশি রোগীরা পেইনকিলার খাওয়া বন্ধ করে দিয়েছেন।

৭। লবণ পানি

গোসলের পানিতে ১০-১৫ টেবিল চামচ (১ কাপ) লবণ মিশিয়ে নিন। এই মিশ্রণটিতে ১৫ মিনিট শরীর ভিজিয়ে রাখুন। এটি শরীরেকে হাইড্রেটেড করে ব্যথা এবং ইনফ্লামেশন হ্রাস করতে সাহায্য করে।

সূত্র: টাইমস অফ ইন্ডিয়া এবং এভরিডে হেলেথ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here