নুরু হত্যার প্রতিবাদে যুক্তরাষ্ট্র ছাত্রদলের সমাবেশ

0
98

নিউইয়র্ক : ছাত্রদল কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সাধারণ সম্পাদক নূরল আলম নূরু হত্যার বিচার দাবিতে বিক্ষোভ-সমাবেশ করলো যুক্তরাষ্ট্র জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল। গত ২ এপ্রিল রোববার সন্ধ্যায় নিউইয়র্ক সিটির জ্যাকসন হাইটসে পালকি পার্টি সেন্টারে এ সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন যুক্তরাষ্ট্র ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক মাজহারুল ইসলাম জনি। প্রধান অতিথি ছিলেন যুবদল কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-আন্তর্জাতিক সম্পাদক এম এ বাতিন।

অনান্যের মধ্যে আরো বক্তব্য রাখেন সিলেট জেলা বিএনপির সাবেক সদস্য শোয়েব আহমেদ, যুক্তরাষ্ট্র জাসাস সভাপতি আলহাজ্ব আবু তাহের, নিউইয়র্ক সিটি যুবদলের সভাপতি খলুক রহমান, যুক্তরাষ্ট্র যুবদলের সাংগঠনিক সম্পাদক ওয়েছ আহমেদ, ব্রঙ্কস বিএনপির সদস্য সচিব কাওছার আহমেদ, শামীম আহমেদ, ফয়সল আহমেদ।অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন ছাত্রদলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শাহ আহমদ সাজ। উল্লেখ্য, গত ২৯ মার্চ বুধবার রাতে বাসা থেকে উঠিয়ে নেয়ার পরদিন চট্টগ্রামের রাউজান উপজেলার বাগোয়ান এলাকায় কর্ণফুলি নদীর পাড়ে হাত-মুখ বাঁধা অবস্থায় নুরুর লাশ পাওয়া যায়। চট্টগ্রাম নগরীর চন্দনপুরার বাসিন্দা নুরুর স্বজনেরা অভিযোগ করেছেন যে, পুলিশ পরিচয়ে তাকে ডেকে নেয়া হয়।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে এম এ বাতিন বলেন, ‘ছাত্রদল নেতা নূরুর লাশের ছবি দেখলে গা শিহরে উঠে। এমন হত্যা একাত্তরের বর্বরতাকেও হার মানায়। নূরু হত্যা প্রমাণ করে বাংলাদেশে আইনের শাসন বলতে কিছুই নেই।’ তিনি অভিযোগ করে বলেন, ‘শেখ হাসিনার পেটুয়া বাহিনী হায়েনার মত এতই হিংস্র হয়েছে যে, যে কোন সময় যে কোন জায়গায় একেকজন নেতাকে ধরে নিয়ে হত্যা করতে পারে।’ তিনি ছাত্র সমাজের প্রতি আহবান জানিয়ে বলেন, ‘নূরুর মৃত্যুর শোককে শক্তিতে পরিণত করে দেশ ও প্রবাসে আন্দোলনের মাধ্যমে অবৈধভাবে ক্ষমতা দখলে রাখা শেখ হাসিনার পতন ঘটাতে হবে।’

সভায় নেতৃবৃন্দের মধ্যে আরো ছিলেন ছাত্রনেতা রুহেলুজ্জামার চৌধুরী, শামীম আহমেদ, নাজিম চৌধুরী রিংকু, তায়েফ আহমদ, কামরান খান, রাজ খান, মুন্না হোসেন, আলী খান, আব্দুল লিমন, আলম তাহের, সেলিম আলী, রুমেল আলী, ফরিদ আক্তার খন্দকার, সায়েদ আলী, নুরল হাসান, মোহাম্মদ মান্নান, ফয়ছল মুল্লা, রেদওয়ান হোসেন।

চট্টগ্রামের সন্তান এবং যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির নেতা অধ্যাপক দেলোয়ার হোসেন এক বিবৃতিতে ছাত্রদলের এই নিতাকে নৃশংসভাবে হত্যাকান্ডে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির পথ সুগম করতেই বেগম জিয়ার নেতৃত্বে দুর্বার আন্দোলনের বিকল্প নেই। অধ্যাপক দেলোয়ার উল্লেখ করেছেন, ‘এভাবেই প্রতিদিন বিরোধী দলের ত্যাগী ও পরীক্ষিত নেতা-কর্মীরা গুম হচ্ছেন অথবা মামলায় গ্রেফতার হচ্ছেন। এমন অবস্থাকে কখনোই গণতান্ত্রিক শাসনের পরিপূরক ভাবার অবকাশ থাকতে পারে না।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here