জমজমাট বৈশাখী মেলায় আরো একবার বাংলাদেশকে চিনিয়ে দিল বাংলাস্কুল ড্যান্স একাডেমি

0
176

ওয়াশিংটন: জমজমাট বৈশাখী মেলায় হাজারো দর্শকের সমানে আরো একবার বাংলাদেশকে প্রবাসীদের কাছে তুলে ধরল বাংলাদেশ সেন্টার ফর কমিউনিটি ডেভেলপমেন্ট ইনক বাংলাস্কুল নৃত্য বিভাগের ক্ষুদে নৃত্যশিল্পী। আইসিসি ওয়ার্ল্ডকাপ ২০১১ এর থীম সং ”ও পৃথিবী এবার এসে বাংলাদেশ নাও চিনে, ও পৃথিবী তোমায় জানাই স্বাগত এইদিনে …” গানের সাথে সাথে বাংলাস্কুল নৃত্য বিভাগের প্রায় চল্লিশজন শিল্পী নেচে গেয়ে পুরো অনুষ্ঠানকে আননন্দধামে ভাষিয়ে নিয়ে যায়। আর আনন্দ উৎসবে বাংলাস্কুলের ক্ষুদে শিল্পীদের সাথে বাংলাদেশ ক্রিকেট টিমের জার্সী আর ক্রিকেট বল ব্যাট হাতে নামে ওয়াশিংটন প্রবাসের ক্রিকেট পাগল তরুণ প্রজন্মের খেলোয়াড়রা।

১৫ এপ্রিল শনিবার ওয়াশিংটনে প্রথমবারের মত অনুষ্ঠিত বাংলা বর্ষবরন উৎসব ১৪২৪ এর অনুষ্ঠান। বিসিসিডিআই বাংলাস্কুলের আয়োজনে অনুষ্ঠিত এই মেলা বিকাল চারটা থেকে রাত ১১টা পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হয় নোভার আনানডেল ক্যাম্পাস অডিটরিয়ামে। শতরূপা বড়–য়া ও শামীম চৌধুরীর প্রানবন্ত উপস্থাপনায় বাংলাদেশ ও আমেরিকার জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশনার মধ্য দিয়ে শুরু বৈশাখী মেলা ১৪২৪ এর অনুষ্ঠান। এরপর বাংলাস্কুল মিউজিক স্কুলের সকল ছাত্রছাত্রীদের পরিবেশনায় পরিবেশিত হয় বৈশাখের গান ”এসো হে বৈশাখ এসো এসো”। বাংলাস্কুল মিউজিক স্কুলের শিক্ষক ওস্তাদ নাসির চৌধুরীর পরিচালনায় ”মাটি ও মানুষের গান” অনুষ্ঠানে শিল্পীরা বাজারে বাজা ঢোল, নিশা লাগিল রে, তোমার রিদ মাজারে রাখব, এই যে দুনীয় কিসের ও লাগিয়া, মানুষ ধর মানুষ ভজ, কোন মিস্তিরি নাও বানাইল ইত্যাদি একের পর এক পরিবেশন করে।

ওস্তাদ নাসির চৌধুরীর পরিচালনায় ”মাটি ও মানুষের গান” অনুষ্ঠানে অংশগ্রহন করে শিখা আহমেদ, নাসিমা খানম, আতিয়া মাহজাবীণ, রিতা বড়–য়া, তানিয়া খান, শাহেদ আকতার, ফৌজিয়া আইরিন, শম্পা, অদিত্য বড়–য়া, শ্রেয়সী বড়–য়া, নাজিব আহমেদ, আরিফুর রহমান স্বপন, উর্মিলা বড়–য়া, রূপালী বড়–য়া, রুমানা, সুমী চৌধুরী, সাইদা আবেদীন, উৎপল বড়–য়া, শিখ মাওলা মিলন, জয় দত্ত, হিমু রোজারীও, মোহাম্মদ আজাদ, আশীষ বড়–য়া ও নাসের চৌধুরী। মাটি ও মানুষের গানের পরে অনুষ্ঠিত হয় বৈশাখী র‌্যালী। র‌্যালীতে বাংলাস্কুলের ছাত্রছাত্রী শিক্ষক শিক্ষীকা কর্মকর্তাবৃন্দ ও তাদের পরিবারের সদস্যদের সম্মিলিত ভাবে অংশগ্রহন করে বাংলা নববর্ষ ১৪২৪ কে স্বাগত জানিয়ে বরন করে নেয়।

র‌্যালী শেষে বাংলাস্কুল মিউজিত একাডেমী ছাত্রছাত্রীদের পরিবেশনায় অনুষ্ঠিত হয় গানের অনুষ্ঠান আনন্দধারা। ওস্তাদ নাসের চৌধুরীর পরিচালনায় স্কুলের ক্ষুদে শিক্ষার্থীরা ধিক ধিক মইশাল ওে, নিমন্ত্রন, ও আমার দরদী আগে জানলে, বন্ধু তিনদিন তোর বাড়িত, শোয়া উরিল উরিল, একবার দারাও বন্ধু, জলা গিয়াছিলাম সই, নিলনা নিলনা নিলো মন, শোয়া যাও জাওরার তেপান্তর, সোনা বন্ধু আমারে দেওয়ানা বানাইল ইত্যাদি গান পরিবেশন করে। এই পর্বে অংশ গ্রহন করে কৌশিক, স্বপ্লিল, দিবিয়া, বিজন, শ্রেয়সী, রানীতা, তাসনুভা অতশী, অহনা, সুশান, অনিতা, অনিক, অবন্তী, আনন্দী, রিদিতা, অনুভা, ফারজান, শ্রিজন, মুহিত, অনুষাদাস গুপ্ত, নোরা প্রমুখ। এছাড়া এই পর্বে তবলায় সঙ্গত করেন আশীষ বড়–য়া, বাঁশী মোহাম্মদ মাজেদ, ঢোল হিমু রোজারীও, গীটার মোহাম্মদ হুদা অনু, ড্রাম আরিফুর রহমান স্বপন, মন্দীরা জয় দত্ত বড়–য়া, ভায়োলিনে ছিলেন দিবিয়া।

এর পরপরেই আনন্দধাম অনুষ্ঠানের মধ্যে দিয়ে আইসিসি ওয়ার্ল্ডকাপ ২০১১ এর থীম সং ”ও পৃথিবী এবার এসে বাংলাদেশ নাও চিনে, ও পৃথিবী তোমায় জানাই স্বাগত এইদিনে …” গানের সাথে সাথে বাংলাস্কুল নৃত্য বিভাগের প্রায় চল্লিশজন শিল্পী নেচে গেয়ে পুরো অনুষ্ঠানকে আননন্দধামে ভাষিয়ে নিয়ে যায়। মুক্তা বড়–য়ার কোরিও গ্রাফীতে এই পর্বে বাংলাস্কুল ড্যান্স একাডেমীর শিক্ষার্থীদের সাথে আরো অংশগ্রহন করে সুশান্তিাক, সাইদ, তানিশা, অনতিা, নোরা, অংকিতা আদিত্য, আনন্দী, অবন্তী, তাসনুভা, মরিয়ম, অতশী, তাজ, জিহাদ, তানিশা, অহনা, রানিতা নাজিলা, রিদিতাম সাবরিনা, পার্থিব, পুনম, আদ্রিতা, সুমিত ফারিয়াল সহ আরো অনেকে।

বিসিসিডিআই বাংলাস্কুল আয়োজিত বৈশাখী মেলা ১৪২৪ এর বিশেষ আর্কষন হিসাবে সঙ্গীত পরিবেশন বাংলাদেশ থেকে আগত শিল্পী সেলিম চৌধুরী। সেলিম চৌধুরী কবিতার মত চোখ, আজ পাশা খেলব, চাঁদনী পসর রাতে কে আমারে, হাছন রাজার বিভিন্ন গান পরিবেশন করে দর্শক শ্রোতাদের মুগ্ধ করেন। অনুষ্ঠানে আগত অতিথিরা বৈশাখী মেলায় খাবারের দোকাগুলোতে পান্তা ইলিশ আর ভর্তার স্বাধ গ্রহন করেন। এছাড়া মেলার বিভিন্ন স্টলে শাড়ী চুড়ি দেশীয় গয়না খেলনা ইত্যাদি ক্রয় করেন। মেলার স্টলগুলোতে ছিল দর্শকদের উপচে পড়া ভীড়। সবশেষে বাংলাস্কুলের সাধারন সম্পাদক আমিনুল ইসলামের ধন্যবাদ জ্ঞাপনের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের সমাপ্ত ঘটে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here