বীর মুক্তিযোদ্ধা শহিদুল হক মামা”র মৃত্যুতে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের শোক

0
194

নিউ ইর্য়কঃযুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সভাপতি ডসিদ্দিকুর রহমানভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদক আইরীন পাভীন ও যুক্তরাষ্ট্রে সফররত বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক এবং গণপ্রজাতন্তী বাংলাদেশ সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিশেষ সহকারী বীরমুক্তিযোদ্ধা ডআব্দুস সোবহান গোলাপ এক শোকবার্তায় বীর মুক্তিযোদ্ধা , গেরিলা কমান্ডার ,সুইডেন আওয়ামী লীগ এর সাবেক সভাপতি প্রবাসে বঙ্গবন্ধুর বিচারের দাবিতে প্রতিবাদ কারী শ্রদ্ধেয় শহিদুল হক মামা”র মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন। উল্লেখ শ্রদ্ধেয় বীর মুক্তিযোদ্ধা শহীদুল হক মামা কাতারের রাজধানী দোহায় বাংলাদেশ সময় রাত ১২টায় একটি হাসপাতালে ইন্তেকাল করেছেন। ইন্নালিল্লাহে ওয়া ইন্নালিল্লাহে রাজেউন।

যুদ্ধাপরাধী কসাই কাদের মোল্লার যুদ্ধাপরাধ মামলার দ্বিতীয় সাক্ষী ছিলেনশহীদুল হক মামা। চরম হুমকি ও প্রলোভনের মুখেও অনড় থেকে কাদের মোল্লার মিথ্যাচার ও বিকৃত তথ্য উপস্থাপনের বিরুদ্ধে সাক্ষী দিতে আদালতে হাজির হন তিনি।কাদের মোল্লা যখন নিজেকে প্রকৃত কাদের মোল্লা নাএবং নির্দোষ হিসেবে প্রমাণের চেস্টায় প্রায় সফল হচ্ছিলঠিক তখনই শহীদ মামা দ্বিতীয় সাক্ষী হিসেবে আদালতে হাজির হয়ে তাকে কুখ্যাত গোলাম আযমের সহচরকবি মেহেরুন্নেসাতার মা ও দুই ভাইকে ২৭ মার্চ ,১৯৭১ সালে সহযোগী হাসিব হাশমী,আব্বাস চেয়ারম্যানআখতার গুন্ডানেহাল ও প্রমুখদের নিয়ে নির্মম ভাবে হত্যা ও টুকরো টুকরো করার কসাই হিসেবে সনাক্ত করেন। স্বাধীনতার শত্রু বিহারিদের দখলে থাকা দুর্ভেদ্য ঘাঁটি মিরপুর মুক্ত যুদ্ধে তিনি অসামান্য ভূমিকা রাখেন ৩১ জানুয়ারি ১৯৭২ সালে। মিরপুরমোহাম্মদপুরকে শত্রুমুক্ত করতে,শহীদুল হক মামার নেতৃত্বে গঠিত হয়েছিল দুর্ধর্ষ গেরিলা গ্রুপ ‘মামা বাহিনী’। হানাদারবিহারীদের আতঙ্ক এই ‘মামা বাহিনী’র কমান্ডার শহীদুল হক মামা রায়ের বাজার থেকে উদ্ধার করেছিলেন বাজারের ব্যাগভর্তি মানুষের চোখ।

 জীবনের প্রতিটি পদে পদে বহু ভয়াবহ হুমকিআক্রমণ ও প্রলোভনের মুখেও তিনি ছিলেন অকুতোভয় ও নির্ভীক । মাথা নত করেননি কোন প্রলোভনের কাছে। সৎনির্মোহ ও পরীক্ষিত আদর্শের এই লড়াকু সৈনিক । অতুলনীয় অতিথিপরায়নসদালাপীবিনয়ী,বন্ধুবৎসল নিরহংকারীপরোপকারী মহানুভব মানুষ শহীদুল হক মামা’র মতো আকর্ষণীয় ব্যক্তিত্বের নজির সমাজে তুলনাহীন।

 বিবৃতিতে সম্মতি জানানযুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সহ–সভাপতি আকতার হোসেন,সৈয়দ বসরাত আলী,মাহাবুবুর রহমান,শামছুদ্দিন আজাদ,লুৎফর করিম,ডা.মো.আলী মানিকসাংগঠনিক সম্পাদক ফারুক আহমেদ,মহিউদ্দিন দেওয়ান,আব্দুল হাসীব মামুন,কৃষি সম্পাদক আশরাফুজ্জামান,বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক জালাল উদ্দিন রুমী,ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ সম্পাদক জাহাঙ্গির হোসেন,মুক্তিযোদ্ধা সম্পাদক মুজাহিদুল ইসলাম,অর্থ সম্পাদক মো.আবুল মনসুর খান,মহিলা সম্পাদিকা শিরিন আক্তার দিবা,বন ও পরিবেশ সম্পাদিকা নূর আলম চৌধুরী,উপ–দপ্তর সম্পাদক আব্দুল মালেক,উপ–প্রচার সম্পাদক তৈয়বুর রহমান টনি,শিল্প ও বাণিজ্য ফরিদ আলমশ্রম সম্পাদক মেজবা আহমেদ,প্রবাসী কল্যাণ সম্পাদক সোলেয়মান আলী,যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক মাহাবুবুর রহমান টুকু,শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক এম এ করিম জাহাঙ্গীর,সাংস্কৃতিক সম্পাদক শহীদ হাসান,ইমিগ্রেশন সম্পাদক আব্দুর রহমান মামুন ও প্রমূখ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here