নিউইয়র্কে বাংলা বাইবেল চার্চ‘র বার্ষিক বনভোজন অনুষ্ঠিত

নিউইয়র্ক: গত ৬ আগস্ট নিউইয়র্ক কুইন্সের ৭৬-১১ উডসাইডস্থ বাংলা বাইবেল চার্চের উদ্যোগে ১৫৭ রকওয়ের দ্যা পিপলস্বিচ এট জ্যাকবরিচ পার্কে বার্ষিক বনভোজনের আয়োজন করা হয়। অত্যন্ত ধর্মীয়ভাব গাম্ভির্জ আর আনন্দ-বিনোদনের মধ্যদিয়ে শুরু হওয়া বাংলা বাইবেলচার্চ-এরএই বার্ষিক বনভোজনে চার্চেরসদস্য-সদস্যা ছাড়াও অসখ্য বন্ধু-সুহৃদ ও প্রিয়জনদের উপস্থিত ছিল চোখে পড়ার মত। দৈনন্দিন কর্মব্যস্ত জীবনের ফাঁকে এই আনন্দ যেন সবার মন ছুয়ে যায়। সবাই ছিল অত্যন্ত আনন্দ মুখর ও শুভেচ্ছা বিনিময়ে প্রাণবন্ত। কিছ ুসময়ের জন্য সবাই যেন হারেয়ে যায় এক অন্য ভুবনে।

মি: যোসেফ হাওলাদারের প্রারম্ভিক প্রার্থনার মধ্য দিয়ে দিনের সূচনা। চলে ধর্মীয় সংঙ্গীত। সূচনা বক্তব্য রাখেন রেভা: খ্রীষ্টফার অধিকারী, চার্চের পাস্টর রেভাম্যাথিওএস, অধিকারীর প্রার্থনা পরিচালনা ও মি: যোসেফটি, বাঢ়ৈএর সমাপনী প্রার্থনার মধ্য দিয়ে প্রথম পর্বের শেষ হয়।

এর পর ছিল খেলাধুলা, সুইমিং। হরেক রকম খাবারে ছিল ভরপুর যাতে কাঁচা আম মাখাও বাদ পড়েনি। চলেছে বারবিকিউ পরিবেশনা। তার পর ছিল দুপুরের খাবার যাতে ছিল সুস্বাদু সব খাবারের আয়োজন। খাওয়াদাওয়ার পরও চলে বিভিন্ন খেলাধুলা। সামগ্রীক অনুষ্ঠান পরিচালনায় ছিলেন চার্চের সুযোগ্য সেক্রেটারি মি: সিলিন্ড্রাএস, হালদার। ছিল উপহার সামগ্রী বিতরণের ব্যবস্থা। ক্যাথরিনা লাভ ফর বাংলাদেশ ইন্কএর চেয়ারম্যান মি: ক্যালভিন মন্ডল উপস্থিত ছিলেন এবং তিনি বিভিন্ন উপহার বিতরণ করেন।

চার্চের পক্ষ থেকে উপহার বিতরণে বিশেষ ভূমিকা রাখেনমি: নোয়েল অধিকারী (বাপ্পী)। সবাই একে অপরকে সহযোগিতায় ছিল আন্তরিক ও প্রাণবন্ত। এই আনন্দঘন মুহূর্তকে স্মৃতিময়করেরাখার জন্য বিকালে সকলে একত্রিত হয়ে ছবি তোলা ও একে অপরকে বিদায়ী সম্ভাবসন জানানোর মধ্য দিয়ে সন্ধ্যা ৬টায় অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়।-বিজ্ঞপ্তি

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here