আটলান্টিক সিটিতে “বাংলাদেশ মেলা” যেন এক খণ্ড বাংলাদেশ

আটলান্টিক সিটি থেকে সুব্রত চৌধুরি- বঙ্গোপসাগরের বুক চিরে জেগে ওঠা নতুন ভূখণ্ডের মতো আটলানটিক মহাসাগর বিধৌত আটলান্টিক সিটির বুকে যেন গত ষোল অাগস্ট , বুধ বার জেগে উঠেছিল একখণ্ড মিনি বাংলাদেশ। বাংলাদেশ এসোসিয়েশন অব সাউথ জার্সির উদ্যোগে নিউজারসি অঙ্গরাজ্যের আটলান্টিক সিটির সেন্ড ক্যাসল স্টেডিয়াম এর সুবিশাল প্রান্তরে অনুষ্ঠিত হলো “বাংলাদেশ মেলা ২০১৭” । মেলার হরেক আয়োজনের মধ্যে ছিল দেশীয় দ্রব্য সামগ্রির বিকিকিনি, দেশীয় খাবারের স্টল, রেফেল ড্র,সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

“বাংলাদেশ মেলা”য় অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন আটলান্টিক সিটির মেয়র ডন গার্ডিয়ান , এসেম্বলীম্যান ক্রিস ব্রাউন, এসেম্বলীম্যান ভিন্স ম্যাজিও , আটলান্টিক সিটির ডেমোক্র্যাট দলীয় মেয়র প্রার্থী ফ্রাঙ্ক গিলিয়াম সহ আসন্ন নির্বাচনে অংশগ্রহনকারী মূলধারার রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ ও পদস্থ কর্মকর্তারা ।বিকেল থেকেই প্রবাসী বাংলাদেশীরা মেলায় সমবেত হতে থাকে।বিশেষ করে যুক্তরাষ্ট্রে বেড়ে ওঠা শিশু- কিশোরদের অংশগ্রহন ছিল উল্লেখযোগ্য, বাংলাদেশের জাতীয় পতাকা হাতে, কপালে জাতীয় পতাকার ব্যান্ড বেঁধে, জাতীয় পতাকার রংয়ের পোশাক পরে তারা মেলায় যোগ দেয়।তাদের উৎসাহ, উচ্ছ্বাস ছিল চোখে পড়ার মতো। সারাক্ষণ নেচে-গেয়ে তারা মেলা প্রান্তরকে মুখরিত করে রাখে।সময়ের সাথে পাল্লা দয়ে এক সময় মেলা প্রাঙ্গণ জনারণ্যে পরিনত হয়।

বিপুল সংখ্যক প্রবাসীর উপস্থিতিতে বিকেল ৬টায় বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় সংগীত পরিবেশনের পর বেলুন উড়িয়ে ‘বাংলাদেশ মেলা’র শুভ উদ্বোধন করা হয় ।এসময় বাংলাদেশ এসোসিয়েশন অব সাউথ জারসির সভাপতি জহিরুল ইসলাম বাবুল, সাধারন সম্পাদক নুরুন্নবী চৌধুরি শামীম,বালাদেশ মেলার আহবায়ক কে এম দিদারুল আলম(দুলাল),রহমান বাবুল,আবদুর রফিক, মোঃ গিয়াসউদ্দিন ,তানিম রহমান, শাহনূর নান্না , সহ বাংলাদেশ এসোসিয়েশনের অন্যান্য নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ মেলায় বিভিন্ন পর্যায়ে বক্তব্য রাখেন কে এম দিদারুল আলম,জহিরুল ইসলাম বাবুল,আব্দুর রফিক,মোঃ গিয়াসউদদীন , ফারুক হোসেন, নাসিরউদদীন শিকদার,নূরুননবী চৌধুরী শামীম প্রমুখ। এছাড়া সাংবাদিক আকবর হোসেন, সাংবাদিক মোঃ শাহীন , সাংবাদিক মোঃ আলী খান বাবুল,সাংবদিক সুব্রত চৌধুরী ও সাংবদিক নাসির খান শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন। আটলান্টিক সিটি মেয়র ডন গার্ডিয়ান তাঁর বক্তব্যে বাংলাদেশ রাষ্ট্রের জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অবদানের কথা স্মরণ করেন এবং এসেম্বলীম্যান ভিন্স ম্যাজিও তাঁর বক্তব্যে বাংলাদেশের গণতান্ত্রিক ব্যবস্থার প্রশংসা করেন। বাংলাদেশ মেলায় বিভিন্ন গ্রেডে ‘এ অনার’ প্রাপ্ত বাংলাদেশী কৃতি ছাএ-ছাএীদেরকে সংবর্ধিত করা হয়।

বাংলাদেশ মেলায় বিভিন্ন স্টলে দেশীয় পণ্য ও খাবারের স্টলগুলোতে বিকিকিনি ছিল লক্ষ্যণীয় ।বাংলাদেশ মেলার অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন প্রবাসের জনপ্রিয় উপস্থাপক এ বুলবুল হাসান।মেলার সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে সংগীত পরিবেশন করেন সংগীত শিল্পী কৌশলী ইমা, শাহ মাহবুব, রাজীব ,রানু নেওয়া্‌জ , কৃষ্ণা তিথি, রিজিয়া পারভীন এবং মাটি ব্যান্ড । তারা বিভিন্ন ধরনের গান পরিবেশন করে দর্শকদের মাতিয়ে রাখেন।দর্শকরা শিল্পীদের গানের সাথে নেচে-গেয়ে আনন্দ উপভোগ করেন।

মেলায় একক নাচ পরিবেশন করে তুসাইতা ইসলাম এবং নিবেদিতা ভটটচারযর পরিচালনায় করনেলিয়া, ঐশিকা, সারদা,শিবা ও বরষন দলীয় নাচ পরিবেশন করে।মেলার মিডিয়া পার্টনার ছিল এনটিভি।রেফেল ড্রর মাধ্যমে বাংলাদেশ মেলার সমাপ্তি ঘটে।ঘড়ির কাঁটা মধ্যরাত ছুঁই ছুঁই করতেই মেলার যবনিকা ঘটে। এক সময় নিভে আসে মেলার আনন্দ আলো।প্রবাসীরা নিজ নিজ ডেরায় ফিরে যায় মুঠো মুঠো সুখস্মৃতি নিয়ে,আর সফল মেলা আয়োজনের জন্য আয়োজকদের হাজারো ধন্যবাদ জানিয়ে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here