ক্ষমতার জন্যে কোন কোন রাজনৈতিক দল জনগণকে জিম্মি করে : ভাষা সৈনিক শামসুল হুদা

এনআরবি নিউজ, নিউইয়র্ক থেকে : ‘প্রতিহিংসার রাজনীতির কারণে বাংলাদেশ প্রত্যাশিত উন্নতি পায়নি। ক্ষমতায় আরোহনের জন্যে কোন কোন রাজনৈতিক দল জনগণকে জিম্মি করে রাজনৈতিক কর্মসূচির নামে যে ধরনের অরাজক পরিস্থিতি তৈরী করেছিল, তার ফলে উন্নয়নের গতি থমকে দাঁড়ায়’-এ মন্তব্য করেছেন একুশে পদকপ্রাপ্ত ভাষা সৈনিক শামসুল হুদা। ৮৫ বছর বয়েসী শামসুল হুদা নিউইয়র্কে নোয়াখালী ভবনে প্রবাসীদের এক সমাবেশে আরো বলেন, ‘অনেকেই বলে থাকেন যে, একাত্তরে মুক্তিযুদ্ধের মধ্য দিয়ে আমরা ভৌগলিক ও রাজনৈতিক স্বাধীনতা অর্জন করলেও অর্থনৈতিক ও সামাজিক স্বাধীনতা আসেনি। আমি এমন মতবাদে বিশ্বাসী নই। প্রকৃত সত্য হচ্ছে, সামাজিক ও অর্থনৈতিকভাবেও বাংলাদেশ অনেক উন্নতি করেছে। তবে যতটা হওয়া উচিত ছিল তা ঘটেনি। এর অন্যতম প্রধান কারণ হচ্ছে, যারা রাজনীতি করেন, যারা সুশীল সমাজের দাবিদার, তাদের বড় একটি অংশ স্বাধীনতার নামে যা-ইচ্ছা তাই করতে চান। গণতান্ত্রিক আন্দোলনের লেবাসে স্বৈরাচারি আচরণে অভ্যস্ত অনেকে’।

১৯ আগস্ট শনিবার সন্ধ্যায় নিউইয়র্ক সিটির ব্রুকলীনে নোয়াখালী ভবনে ‘নোয়াখালী সোসাইটি’র প্রাক-নির্বাচনী সমাবেশে বায়ান্নান একুশে ফেব্রুয়ারি ভোরে ১৪৪ ধারা ভঙ্গ করার মিছিল থেকে গ্রেফতার হওয়া শামসুল হুদা উপস্থিত হলে সকলেই তাকে সাদর অভ্যর্থনা জানান। সোসাইটির নির্বাচনী আলোচনার আগেই তাকে সকলে শ্রদ্ধা জানানোর পর সংক্ষিপ্ত বক্তব্য প্রদানের সুযোগ দেন। এ সময় তিনি সকলকে বাংলাদেশের সামগ্রিক কল্যাণে ঐক্যবদ্ধ থাকার আহবান জানান।

নোয়াখালী অঞ্চলের ফেনী জেলার সোনাগাজী উপজেলার চর চান্দিনা গ্রামের সন্তান শামসুল হুদাকে গত বছর কানাডার হাউজ অব কমন্স থেকেও বিশেষ সম্মাননা জানানো হয়েছে। তার পুত্র-কন্যার সকলেই কানাডা ও যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক।  নোয়াখালী সোসাইটির এ সভায় সভাপতিত্ব করেন আলহাজ্ব রব মিয়া এবং পরিচালনা করেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক জাহিদ মিন্টু। এ সময় আরো বক্তব্য রাখেন কম্যুনিটি লিডার সেলিম চৌধুরী বাবুল, মিনহাজ আহমেদ বাবর, খোকন মোশারফ, ইউসুফ জসীম প্রমুখ। বিশিষ্টজনদের মধ্যে মঞ্চে উপবেশন করেন সোসাইটির বোর্ড অব ট্রাস্টির চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মফিজুর রহমান, সাবেক নির্বাচন কমিশনার আবু নাসের।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here