শক্তিশালী ইরমার ভয়ে কাঁপছে ফ্লোরিডা

0
39

আর্ন্তজাতিক ডেস্ক: সম্প্রতিই আমেরিকার টেক্সাস এবং লুইজিয়ানার ওপরে আছড়ে পড়েছিল ঘূর্ণিঝড় হার্ভে। ক্যাটগরি-৩ এর এই ঘূর্ণিঝড়ের দাপটে মৃত্যু হয় ৫০ জনের। ভেঙে পড়ে ১ লক্ষ ৮৫ হাজার বাড়ি। ৯ হাজার বাড়ি নিশ্চিহ্ন হয়ে যায়। হার্ভে হামলার ঠিক পরেই গত বুধবার আবহবিদেরা পূর্ব অতলান্তিকে আরও একটি ঘূর্ণিঝড় কুণ্ডলী পাকাচ্ছে বলে চিহ্নিত করেন। খুব দ্রুত এই নতুন ঘূর্ণিঝড় আরও বড় আতঙ্কের চেহারা নেয়।

আবহাওয়াবিদদের পূর্বাভাস অনুযায়ী, ২৭০ কিলোমিটার গতিবেগে রবিবার সকালেই তা আছড়ে পড়তে চলেছে ফ্লোরিডায়। পূর্বাভাস পেয়েই ফ্লোরিডা জুড়ে লাল সতর্কতা জারি করেছে প্রশাসন।

আমেরিকার ন্যাশনাল ওয়েদার সার্ভিস সূত্রে খবর, স্থানীয় সময় রাত ২টার দিকে ইরমার অবস্থান ছিল কিউবার শহর ক্যাবারিয়েন থেকে ১৩৫ কিলোমিটার উত্তরে এবং মিয়ামি থেকে ৪৪০ কিলোমিটার দূরে। গতিবেগ ২৬০ কিলোমিটার। সময় যত এগোচ্ছে আরও শক্তিশালী হচ্ছে ইরমা।

ফ্লোরিডায় আছড়ে পড়ার পর তা আরও ভয়াবহ রূপ নেবে বলে জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদেরা।

ইরমায় সতর্কবার্তা জারি হওয়ার পরই বাসিন্দাদের নিরাপদ জায়গায় সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার তোড়জোড় শুরু করেছে প্রশাসন। ফ্লোরিডার ৫৬ লক্ষ মানুষকে অন্যত্র চলে যাওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। বাসিন্দাদের ইরমা সম্পর্কে সতর্ক করতে হেলিকপ্টার করে লিফলেট ফেলা হচ্ছে।

ফ্লোরিডার গভর্নর রিক স্কট জানিয়েছেন, ইরমার তাণ্ডব শুরু হয়ে গেলে উদ্ধারকারী দল পাঠানো যাবে না। তাই যত দ্রুত সম্ভব নিরাপদ জায়গায় চলে যেতে বাসিন্দাদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। আগেভাগেই তাই বাড়ির জানলা-দরজা কাঠের টুকরো লাগিয়ে বন্ধ করে দিচ্ছেন বাসিন্দারা। ঘরে জমাচ্ছেন বালির বস্তা।

আমেরিকার হারিকেন সেন্টারের ডেপুটি ডিরেক্টর মার্ক ডিমারিয়া জানান, এখনও পর্যন্ত ইরমার অভিমুখ ফ্লোরিডার দিকেই। মুখ ঘোরানোর কোনও সম্ভাবনা নেই। বিশেষ করে দক্ষিণ ফ্লোরিডার ওপর দিয়ে ইরমার সবচেয়ে ভয়ানক অংশটি যাবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here