রোহিঙ্গা শরণার্থী নিয়ে বাংলাদেশের প্রশংসায় কংগ্রেসম্যানরা

 

বর্ণমালা ডেস্ক: রোহিঙ্গা সংকট মোকাবিলায় বাংলাদেশ সরকারের প্রশংসা করেছেন শীর্ষ মার্কিন কর্মকর্তারা। তারা জানিয়েছেন, রোহিঙ্গাদের জন্য সীমান্ত খুলে দিয়ে ও তাদের সহায়তায় আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলোকে অনুমতি দিয়ে বাংলাদেশ ‘অত্যন্ত প্রশংসনীয় কাজ’ করেছে। যুক্তরাষ্ট্রের জনসংখ্যা, শরণার্থী ও অভিবাসন বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সহকারী উপমন্ত্রী মার্ক সি স্টোরেলা বলেন, ‘আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সঙ্গে বাংলাদেশের একত্রিত হয়ে কাজ করার বিষয়টি প্রশংসার দাবিদার। অসহায় রোহিঙ্গাদের জন্য সীমান্ত খুলে দিয়ে তারা মানবিক দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে।’

মার্ক সি স্টোরেলা

সম্প্রতি সিনেটের বৈদেশিক সম্পর্ক বিষয়ক কংগ্রেসনাল কমিটির এক শুনানিতে একথা বলেন তিনি। সিনেটর টিম কেইনের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ কাজ ছিল জাতিসংঘের শরণার্থী সংস্থাকে সঙ্গে নিয়ে শরণার্থীদের নিবন্ধন করা। বাংলাদেশের মার্কিন দূতাবাসের ডেপুটি চিফ অব মিশনের সঙ্গে আলাপ করে স্টোরেলা বলেন, এখন পর্যন্ত ২ লাখ ৬০ হাজার শরণার্থীর নিবন্ধন করা হয়েছে। প্রতিদিন ১৩ হাজার নিবন্ধন করা হচ্ছে।

জোসেফ ক্রাউলি

এদিকে বাংলাদেশের প্রশংসা করে সিনেটর বেন কার্ডিন বলেন, সেখানকার শরণার্থী পরিস্থিতি মোকাবিলায় আমাদের সবার সাড়া দিতে হবে।

স্টোরেলা বলেন, ‘আমরা বাংলাদেশের সীমান্ত খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্তের অত্যন্ত প্রশংসা করি। তাদের খাবার, পানি, আশ্রয় ও চিকিৎসা প্রয়োজন। বাংলাদেশি কর্মকর্তাদের সঙ্গে প্রত্যেক বৈঠকে যুক্তরাষ্ট্র ধন্যবাদ জানিয়েছে। তিনি বলেন, আমরা তাদের নিরাপত্তার ব্যাপার মাথায় রেখে মানবিক দিক বিবেচনা করার আহ্বান জানিয়েছি।’

জাতিসংঘের মাধ্যমে

মার্ক সি স্টোরেলা

রোহিঙ্গাদের জন্য মানবিক সহায়তা পাঠাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। ইউএসএআইডি’র গণতন্ত্র, সহিংসতা ও মানবিক সহায়তা বিষয়ক অফিসে ভারপ্রাপ্ত উপ-সহকারী প্রশাসক কেট সোমভোংসরি বলেন, ‘আমরা বাংলাদেশে অনেক কাজ করছি। আমরা চেষ্টা করছি কক্সবাজার এলাকায় কিভাবে ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তা করা যায়।’

কংগ্রেসম্যান জো ক্রলি বলেন, মিয়ানমারের সহিংসতা খ্বুই আপত্তিজনক। তিনি বলেন, ‘রোহিঙ্গাদের সঙ্গে যা হয়েছে তা খুবই বেদনাদায়ক। আমি ট্রাম্প প্রশাসনকে শক্ত পদক্ষেপ নেওয়ার আহ্বান জানাই।’ তিনি আরও বলেন, ‘আমার সহকর্মীদের মতো আমিও বাংলাদেশের প্রতি খুবই কৃতজ্ঞ।
(ললিত কে ঝা, ওয়াশিংটন- বাংলা ট্রিবিউন)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here