যুক্তরাষ্ট্র আ.লীগ সভাপতির বিরুদ্ধে মিথ্যাচার ও কুৎসা রটনার প্রতিবাদ

0
139

বর্ণমালা ডেস্ক: যুক্তরাষ্ট্র জাসদ-এর এক সভায় ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব, দলীয় সভানেত্রী শেখ হাসিনা ও বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাবেক নেতৃবৃন্দ সম্পর্কে’ যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ সভাপতি ড. সিদ্দিকুর রহমানের বক্তব্যের প্রতিবাদে আয়োজিত নিউইয়র্কে বসবাসরত ছাত্রলীগের সাবেক নেতৃবৃন্দ আহুত গত ১২ নভেম্বর ‘তথাকথিত সাংবাদিক সম্মেলন’-এর প্রতিবাদ করেছে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ। সংগঠনের এক কর্মী সভায় ঐ সংবাদ সম্মেলনে ড. সিদ্দিকুর রহমান সম্পর্কে প্রদত্ত বক্তব্যের প্রতিবাদ করে সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। খবর ইউএনএ’র।

দলের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়: যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের উদ্যোগে গত ১৪ নভেম্বর জ্যাকসন হাইটসের মেজবান রেষ্টুরেন্টে সন্ধ্যায় এক কর্মী সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহাবুবুর রহমান এবং পরিচালনা করেন ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আবদুস সামাদ আজাদ।

সভায় তথাকথিত সাংবাদিক সম্মেলনে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সভাপতি ড. সিদ্দিকুর হমানের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্র জাসদ-এর সভায় সভাপতির বক্তব্যকে কেন্দ্র করে যে ধ¤্রজাল সৃষ্টি করা হয়েছে তার তীব্র নিন্দা ও প্রাতিবাদ জানান হয়।
সভায় বলা হয়: কতিপয় সাবেক ছাত্রলীগ নেতা নামধারী কর্মীবর্গ জননেত্রী সভাপতি কর্তৃক মনোনীত সভাপতি ড. সিদ্দিকুর রহমানের বিরুদ্ধে মনগড়া ও মিথ্যা সাংবাদিক সম্মেলনে প্রচার করে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের ভাবমূর্তিকে চরমভাবে ক্ষুন্ন করেছে।

যুক্তরাষ্ট্র আওয়মী লীগের পদ ব্যবহার করে যারা দলের সভাপতির বিরুদ্ধে সাংবাদিক সম্মেলন করে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের ভাবমূর্তিকে বিনষ্ট করেছে বলে আজকের কর্মী সভায় তাদের বিরুদ্ধে কার্যকরী কমিটির সভায় সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য সভার বক্তাগণ অভিমত ব্যক্ত করেন।সভায় বলা হয়: যুক্তরাষ্ট্র জাসদ-এর সমাবেশে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সভাপতি ড. সিদ্দিকুর রহমান কোথাও কোনভাবে দলের বিরুদ্ধে কোন বক্তব্য প্রদান করেননি। কোথাও বঙ্গবন্ধু এবং নেত্রীকে নিয়ে নেতিবাচক কথা বলেননি এবং বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাবেক নেতৃবৃন্দের বিরুদ্ধেও তিনি কোন কথা বলেননি। সংবাদ সম্মেলনের তথাকথিত বক্তাগণ সভাপতির বক্তব্যকে মিথ্যাভাবে অপব্যাখ্যা দিয়েছেন। সভায় আগামী কার্যকরী কমমিটির সভায় বিভিন্ন স্টেট কমিটির সমস্যা নিরসনে কর্যকরী ব্যবস্থা নেয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here