প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আগমন উপলক্ষে প্যারিসে সাজ সাজ রব

0
121

প্যারিস থেকে: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আগমন উপলক্ষে প্যারিসের বাংলাদেশী অধ্যুষিত এলাকা গার দ্যু নর্দ এখন প্রবাসী বাংলাদেশিদের পদচারণে সরগরম। রাতভর আলোচনা, পরিকল্পনা। মাঝে মাঝে স্লোগান। হরদম মিলছে বাদাম-চানাচুর, চা-কফি। আছে পান-সুপারির আয়োজন। সর্বত্র উল্লাস, উচ্ছ্বাস, উত্তেজনা। এসবের ভিড়ে একটু ঢুঁ মারলে জানা যায় আসল ঘটনা। বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্যারিসে আসছেন। তার আগমন ঘিরে এই তোড়জোড়।

ওয়ান প্ল্যানেট সামিট’ নামে ক্লাইমেট অ্যাকশন সংক্রান্ত আন্তর্জাতিক কনফারেন্সে অংশ নিতে ১১ ডিসেম্বর ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিস আসবেন প্রধানমন্ত্রী। তিনদিন সফর শেষে ঢাকার উদ্দেশ্যে ১৩ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় রওনা দেবেন বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে। সামিটে অংশ নেয়া ছাড়াও বাই ল্যাটারাল বিভিন্ন ইস্যুতে ফ্রান্সের রাষ্ট্রীয় পর্যায়ে উচ্চপদস্থ ব্যক্তিদের সঙ্গে মিটিং করবেন প্রধানমন্ত্রী। ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ’র সাথে ১২তারিখ প্রধানমন্ত্রীর বৈঠকের সম্ভাবনা আছে।

দূতাবাস সূত্রে জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ফ্রান্স সফরকালীন সময়ে দেয়া সম্বর্ধনার বিষয়টি চুড়ান্ত হয়েছে। দূতাবাসের তত্বাবধানে ফ্রান্স আওয়ামী লীগের নেতৃত্বেই প্রধানমন্ত্রীকে সংবর্ধনা দেয়া হবে। প্রধানমন্ত্রীর সংবর্ধনা সভা সাফল্যমন্ডিত করার জন্য ফ্রান্স আওয়ামী লীগের ১০ সদস্য বিশিষ্ট একটি কমিটি করা হয়েছে। আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর প্যারিস সফর নিয়ে বিনিদ্র রাত কাটাচ্ছেন দলের প্রবাসী নেতা-কর্মী ও সমর্থকেরা। অনেক সাধারণ প্রবাসীও আছেন এই দলে। প্রধানমন্ত্রীকে স্বাগত জানাতে বিমানবন্দরে যাওয়া নিয়ে তাদের মধ্যে উৎসব-উৎসব ভাব।দলীয় নেতা-কর্মীদের আলাপ-আলোচনায় ঘুরেফিরে আসছে শেখ হাসিনার সফরের নানা বিষয়। বেশ কিছু প্রবাসীর ভাষ্য, প্রধানমন্ত্রীর আগমন উপলক্ষে তারা প্রায় এক সপ্তাহ আগে কাজ থেকে ছুটি নিয়েছেন। কর্মে যাচ্ছেন না। কাজের ফাঁকে জড়ো হচ্ছেন। একজন আওয়ামী সমর্থক বলেন, দলে তার কোনো পদ-পদবি নেই। তবুও প্রাণপ্রিয় নেত্রীকে একনজর দেখতে কাজ থেকে আগাম ছুটি নিয়েছেন। নাগরিক সংবর্ধনায় কে মঞ্চে থাকবেন, কে ফুল দেবেন-এ নিয়ে চলছে টানা সভা। দলাদলি ও কোন্দলও হচ্ছে।

ফ্রান্স আওয়ামী লীগের সভাপতি এম এ কাসেম ও সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমান বলেন, সব ষড়যন্ত্র মোকাবিলা করে প্রধানমন্ত্রীর প্যারিস সফর সফল হবে। এ জন্য সব প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। সবদিক মিলে উৎসবের আমেজে উৎফুল্ল কর্মীরা। বাংলাদেশী অধ্যুষিত টি ষ্টল গুলোতে পক্ষে-বিপক্ষে চলছে আলোচনার ঝড়।এদিকে প্রধানমন্ত্রীর প্যারিস সফরের সময় ব্যাপক বিক্ষোভ-সমাবেশের ডাক দিয়েছে বিএনপি ও সমমনারা।

প্রধানমন্ত্রীর সংবর্ধনা কমিটির অন্যতম সদস্য সাবেক সভাপতি, নাজিম উদ্দিন আহমেদ, বেনজির আহমেদ সেলিম, সাবেক সাধারণ সম্পাদক আবুল কাসেম বলেন, দেশ ও প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার ভাবমূর্তি বিনষ্টের যেকোনো অপচেষ্টা তারা প্রতিহত করবেন। প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তা বাহিনীর অগ্রবর্তী টিমের সঙ্গে আমাদের সার্বক্ষনিক যোগাযোগের মাধ্যমে করনীয় ঠিক করা হচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here