ভ্রমণ : যেসব স্থানে রং, তুলি আর ক্যানভাস নিয়ে ছোটেন চিত্রশিল্পীরা

0
122

চিত্রশিল্পীদের চোখে জাগতিক সৌন্দর্যটা সবার আগেই হয়তো চোখে পড়ে। এ কারণেই তারা অপূর্ব সব স্থানে ছুটে যান। সেখানে মনের মাধুরী মিশিয়ে অনন্য সব চিত্রকর্ম সৃষ্টি করেন। পর্যটকদের অনেকেই চিত্রশিল্পীদের অনুসরণ করেন। তারা যেসব স্থানে যান, সেখানেই নাকি যাওয়াটা বুদ্ধিমানের কাজ। এখানে আমেরিকার এমন কয়েকটি স্থানের কথা জেনে নিন, যেখানে আঁকিয়েরা সুযোগ পেলেই ছুটে যান।

রকপোর্ট : ম্যাসাচুসেটসের এসেক্স কাউন্টির রকপোর্ট এলাকা। এই স্থানের ছবি যতবার আঁকানো হয়েছে, ততবার আর কোনো স্থানের ছবি শিল্পীর তুলিতে উঠে আসেনি। এখানকার বিভিন্ন রংয়ের ভবন, মাছ ধরার নৌকা আর নীল পানি সত্যিকার অর্থেই এক আকর্ষণীয় ক্যানভাস যেন।

 

গ্র্যান্ড ক্যানিয়ন : এর কথা বহুবার শুনেছেন। প্রতিবছর হাজার হাজার মানুষ পৃথিবীর বিভিন্ন দেশ থেকে ছুটে আসেন গভীরতম গিরিখাত একনজর দেখতে। শুধু তারাই নন, দরে ভিড়ে যান অসংখ্য শিল্পী। রং, তুলি আর ক্যানভাস নিয়ে বসে পড়েন সেখানে। তাদের ছবি কিন্তু গ্র্যান্ড ক্যানিয়নের পর্যটন শিল্পকে অনেক বিকশিত করেছে।

মনহিগান আইল্যান্ড : আমেরিকান মেইনের এই দ্বীপটি কিন্তু শিল্পীদের প্রিয় স্থান। এডওয়ার্ড হপার কিংবা জেমি ওয়েথ এর মতো বিখ্যাত চিত্রশিল্পীদের তুলিতে এই দ্বীপ উঠে এসেছে। আপনি যদি যেতে পারেন, তাদের মনের অবস্থা কিছুটা হলেও আঁচ করতে পারবেন।

 

ক্যাটারস্কিল ফলস : উনিশ শো শতকের প্রথম দিকে ক্যাটস্কিল মাউন্টেইন্সের এই জলপ্রপাতের ছবি এঁকেছিলেন হাডসন রিভার স্কুলের চিত্রশিল্পীরা। তখনই বিশ্বের বিভিন্ন দেশের পর্যটকদের নজর কাড়ে তা। অসম্ভব সুন্দর এক লীলাভূমি।

জিওন ন্যাশনাল পার্ক : এই পার্কটা এতই সুন্দর যে এর ছবি আঁকতে অসংখ্য চিত্রশিল্পী ছুটে আসেন। শুধু তাই নয়, এখানে প্রতিবছর আকাশে ভাসতে ভাসতে জিওন ন্যাশনাল পার্কের ছবি আঁকানোর সুযোগ করে দেওয়া হয়।


সূত্র : ইউএসএ টুডে

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here