চুল পড়া বন্ধে পেঁয়াজের রসের কার্যকরী ব্যবহার

0
34

স্বাস্থ্য ডেস্ক: পেঁয়াজের রসে আছে প্রচুর পরিমাণে সালফার। এটি মাথার ত্বকের রক্ত চলাচল বৃদ্ধি করে থাকে। এমনকি সালফার আপনার ত্বকের কোলাজেন উৎপাদন বৃদ্ধি করে নতুন চুল গজাতে সাহায্য করে। এতে অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল উপাদান আছে যা মাথার তালুকে বিভিন্ন রোগ জীবাণু হতে রক্ষা করে।

সপ্তাহে ২/৩ বার পেঁয়াজের রস ব্যবহারে এটি মাথার তালুর বিভিন্ন সমস্যা যেমন ফাঙ্গাস, খুশকি, ইনফেকশন থেকে মাথার তালুকে রক্ষা করে থাকে। এটি সব ধরণের চুলের অধিকারীরাই ব্যবহার করতে পারেন।

১. কাঁচা পেঁয়াজের রসঃ
পেঁয়াজের রস থেকে সবচেয়ে ভাল ফল পেতে চাইলে এটি সরাসরি ব্যবহার করুন। ২/৩ টি বড় পেঁয়াজ নিয়ে ব্লেন্ড করে রস করে ফেলুন। রস মাথার তালুতে আঙ্গুলের ডগা দিয়ে ম্যাসাজ করে লাগান। কমপক্ষে ৩০ মিনিট অপেক্ষা করুন। এরপর শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে ৩ বার এটি ব্যবহার করুন। এক, দু মাসের মধ্যে আপনি পরিবর্তন দেখতে পাবেন।

২. মধু পেঁয়াজের রসঃ
এটি আপনি খেতেও পারেন আবার চুলেও ব্যবহার করতে পারেন। সিকি কাপ পেঁয়াজের রসের সাথে ১ টেবিল চামচ মধু মিশিয়ে নিন। প্রতিদিন এটি পান করুন। এটি আপনার হজম শক্তি বাড়াতে সাহায্য করবে। এটি আপনি চুলে ও লাগাতে পারেন। ১০ মিনিট ম্যাসাজ করে শ্যাম্পু করে চুল ধুয়ে ফেলুন।

৩. পেঁয়াজের রস এবং তেলঃ
৩ টেবিলচামচ পেঁয়াজের রসের সাথে ১ টেবিল চামচ নারকেলের তেল,১ টেবিল চামচ অলিভ অয়েল মিশিয়ে নিন। সপ্তাহে তিনবার এটি আপনার চুলে ব্যবহার করুন। আপনি যদি শুষ্ক মাথার ত্বকের অধিকারী হয়ে থাকেন তবে এটি খুব ভাল ফল দিবে।

৪. পেঁয়াজ এবং লেবুর রসঃ
৩ টেবিল চামচ পেঁয়াজের রসের সাথে ২ টেবিল চামচ লেবুর রস মিশিয়ে নিন। এটি মাথার তালুতে আস্তে আস্তে ম্যাসাজ করুন। লেবুর রস খুশকি দূর করতে অনেক বেশী কার্যকরী। আর পেঁয়াজের রস নতুন গোঁজাতে কার্যকরী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here