নিউ ইংল্যান্ড হিন্দু সোসাইটির পিঠা উৎসবে প্রাণের আমেজ

0
50

নিউইয়র্ক থেকে :শীতের পিঠা কে-না ভালোবাসে হউক না একটু দেরি, তাতে কি যায় আসে। আর বাঙালির এই প্রিয় উৎসবটির আয়োজন করে যুক্তরাষ্ট্রের বোস্টনের নিউ ইংল্যান্ড হিন্দু সোসাইটি।

গত শনিবার সন্ধ্যায় ম্যাসাচুসেটস অঙ্গরাজ্যের ক্যামব্রিজ শহরের একটি মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত এই পিঠা পার্বণটি ছিল আকর্ষণীয়।

বোস্টনের আসেপাশে বসবাসকারী হিন্দু সোসাইটির সদস্যরা তাদের পরিবার-পরিজন নিয়ে নানা সাজে সজ্জিত হয়ে স্বতঃস্ফূর্তভাবে নিজেদের হাতে তৈরি পিঠা নিয়ে উৎসবে যোগদান করেন। সঙ্গে করে আরো নিয়ে আসেন পিঠা বানানোর গল্প। কার কাছ থেকে কীভাবে পিঠা বানানো শিখেছেন। এমন গল্পের মধ্যেই চতুর্দিক থেকে আসতে থাকে শুধু পিঠা আর পিঠা।


রাত ৮টার পর ছিল পিঠা উপভোগের পালা। সংগঠনের প্রেসিডেন্ট ড. মুধুসুদন মালো ও উপদেষ্টা ড. বিনয় ভূষণ পালের পিঠা গ্রহণের মধ্য দিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে তা শুরু হয়। ছোট বড় বয়ষ্ক সবাই পিঠা নিয়ে নিজেদের মত করে উপভোগ করতে থাকেন। সাথে চলতে থাকে হারানো দিনের গল্প আর নির্মল আড্ডা।

পিঠার স্বাদ গ্রহণের পর পরই পরিবেশন করা হয় রাতের খওয়া। সাদা ভাত সাথে চিকেন,  ডাল আর নানান ধরনের ঝালভর্তা।

এ পৌষ সংক্রান্তি উৎসবে পিঠা বানিয়ে এনেছিলেন চম্পা দাস, ইলা দে, শম্পা তালুকদার, মৌমিতা দাস, অভয়া দেব, তুলিকা দেব, শিল্পী নাথ, পম্পী শীল, সমাপ্তি মালো, সীমা দেব, মৌসুমি দাস, কবিতা মালো, শিপ্রা মজুমদার, প্রীতিলতা বৈদ্য, লিপি নাথ, লাকি দাস অন্যতম।

সুস্বাদু পিঠাগুলোর মধ্যে ছিল দুধ পুলি, পাটিসাপটা, সুজির পোয়া, চিড়ার পিঠা, সন্দেশ পিঠা, শীতল পিঠা, ভাপা পিঠা, ঝালপিঠা, সাঁজের পিঠা, ছড়া পিঠা, আলুর পিঠা।

অংশগ্রহণকারি সবাই নিজস্ব সংস্কতির পরিমণ্ডলে হৃদয়ের উষ্ণতায় উপভোগ করেন প্রিয় মাতৃভূমির শৈশব আর কৈশরের স্মৃতি রুমন্থনের মাধ্যমে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here