ল্যাটের ভেতর সুটকেসে তরুণীর পচা দেহ

0
47

আর্ন্তজাতিক ডেস্ক: ফ্ল্যাটের ভেতর সুটকেস থেকে এক তরুণীর পচাগলা দেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এঘটনায় ওই ফ্ল্যাটের বাসিন্দা ব্যাংক ম্যানেজারকে আটক করেছে পুলিশ। ঘটনাটি পশ্চিমবঙ্গের দুর্গাপুরের।

আনন্দবাজার পত্রিকার খবরে বলা হয়, বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে আটটা নাগাদ দুর্গাপুর থানায় ফোন করে ওই ব্যাংক ম্যানেজারই জানিয়েছিলেন, তার ঘরে এক জন আত্মহত্যা করেছেন। খবর পেয়েই তড়িঘড়ি তার ফ্ল্যাটে হাজির হয় পুলিশ। কিন্তু সেখানে গিয়ে বড় একটি সুটকেসের ভিতর থেকে এক তরুণীর পচাগলা দেহ উদ্ধার করে তারা। এর পরেই ওই ম্যানেজার এবং তার স্ত্রীকে আটক করে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

স্টেট ব্যাঙ্কের মেজিয়া শাখার ওই ম্যানেজারের নাম রাজীব কুমার। তিনি বেনাচিতির রূপালি অ্যাপার্টমেন্টের একটি ফ্ল্যাটে ভাড়া থাকেন। সেখানে থাকেন রাজীবের স্ত্রী মনীষাও। তিনিও স্টেট ব্যাঙ্কের ফুলঝোরা শাখার সহকারী ম্যানেজার। প্রাথমিক ভাবে পুলিশের ধারণা, ওই তরুণীকে খুন করে সুটকেস বন্দি করা হয়েছিল। ঠিক কবে ওই তরুণী মারা গিয়েছেন, ময়নাতদন্তের পরেই তা জানা যাবে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

পুলিশ জানিয়েছে, যে তরুণীর দেহ উদ্ধার হয়েছে তাঁর নাম শিল্পা অগ্রবাল। তাঁর বাড়ি বাঁকুড়ার মেজিয়ায়। রাজীব যে শাখার ম্যানেজার, সেখানেই ‘ব্যাঙ্ক মিত্র’ হিসাবে কাজ করতেন শিল্পা। সেই সূত্রেই দু’জনের ঘনিষ্ঠতা। কী ভাবে খুন হলেন শিল্পা? রাজীব এবং তাঁর স্ত্রী-ই কি এই খুনের সঙ্গে জড়িত? যদি অন্য কেউ খুন করে থাকে, তবে রাজীবের ফ্ল্যাটে সুটকেসবন্দি দেহ এল কী ভাবে? এসবের হদিশ পেতে আপাতত রাজীব আর মনীষাকে জেরা করছে পুলিশ।

তবে শিল্পার এক আত্মীয় এ দিন জানিয়েছেন, কয়েক মাস আগে রাজীব ওই তরুণীর কাছ থেকে লাখখানেক টাকা নিয়েছিলেন। শেয়ার বাজারে সেই টাকা খাটানোর কথা বলেছিলেন তিনি। কিন্তু, এর পর সেই টাকা বার বার চেয়েও ফেরত পাননি শিল্পা। ওই আত্মীয়ের দাবি, টাকাপয়সা নিয়ে গণ্ডগোলের জেরেই শিল্পাকে খুন করেছেন রাজীব এবং তাঁর স্ত্রী।

তবে, পুলিশ এই দাবি নিয়ে খুব একটা একমত হতে পারছে না। তাদের মতে, রাজীব এবং তাঁর স্ত্রী স্টেট ব্যাঙ্কের উঁচু পদে কাজ করেন। বেশ ভাল অঙ্কের বেতনও পান তাঁরা। সেই নিরিখে এক লাখ টাকার জন্য এমন ভাবে খুন করতে যাওয়াটা কি খুব স্বাভাবিক? প্রশ্ন পুলিশের। তবে পুলিশেরই একটা অংশের দাবি, সামান্য টাকা নিয়েও বিবাদের জেরে খুন হওয়ার উদাহরণ অনেক রয়েছে। কাজেই বিষয়টা একেবারেই উড়িয়ে দেওয়ার নয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here