কানাডায় শেখ হাসিনার সংবর্ধনা ১০ জুন

0
49

নিউইয়র্ক থেকে : নারী ক্ষমতায়ন এবং উদ্বাস্তুদের আশ্রয় প্রদানের অবিস্মরণীয় পদক্ষেপ গ্রহণে সাহসিকতার কথা জানতে চায় জি-সেভেন সামিট। এজন্যে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বিশেষভাবে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে কানাডার কুইবেকে অনুষ্ঠিতব্য শীর্ষ ধনদেশগুলোর বার্ষিক সম্মেলনে। এটি হবে ৮ ও ৯ জুন।

এ সম্মেলনের হোস্ট কান্ট্রি কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো এক বিবৃতিতে বলেছেন, চলতি বছরের জি-৭ শীর্ষ সম্মেলনের এজেন্ডা নির্দ্ধারণে প্রগতিতে প্রাধান্য দেয়ায় কানাডা গৌরববোধ করছে। লিঙ্গ সমতা, নারীর ক্ষমতায়ন, ক্লিন এনার্জি এবং সকলের উপকারে আসে এমনভাবে অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির স্বার্থে করণীয় নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হবে এই সম্মেলনে। কানাডার প্রধানমন্ত্রী বিশেষভাবে উল্লেখ করেছেন, আমরা এমন একটি অর্থনৈতিক ব্যবস্থা নিয়ে শলাপরামর্শ করতে চাই যা সকল নাগরিকের জন্যেই কল্যাণকর হবে। আর এভাবেই আমরা আমাদের সন্তান ও নাতি-পুতিদের জন্যে নিরাপদ, স্বাস্থ্যসম্মত এবং শান্তিপূর্ণ বিশ্ব রচনায় ব্রতি হতে চাই।

জানা গেছে, এই সম্মেলনে শেখ হাসিনাকে বিশেষভাবে সম্মান জানানো হবে। সম্মেলনের পর ১০ জুন টরন্টোতে প্রবাসীরা নাগরিক সংবর্ধনা দেবেন শেখ হাসিনাকে। এ উপলক্ষে কানাডা আওয়ামী লীগ ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উজ্জীবিত প্রবাসীরা নানা প্রস্তুতি নিচ্ছেন। দীর্ঘদিনের অনৈক্য ঘুচে গেছে কানাডা আওয়ামী পরিবারে। সকলের সম্মিলিত উদ্যোগে সংবর্ধনা-সমাবেশটি হবে ডাউন টাউন টরন্টোতে মেট্র কনভেনশন সেন্টারে।

১১ জুন ঢাকার উদ্দেশ্যে কানাডা ত্যাগ করবেন প্রধানমন্ত্রী। টরন্টোর এই কর্মসূচিতে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ, নিউইয়র্ক মহানগর আওয়ামী লীগ, নিউ ইংল্যান্ড আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরাও যোগ দেবেন বলে জানা গেছে। যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সভাপতি ড. সিদ্দিকুর রহমান জি-৭ সম্মেলন চলাকালিন সময়ে কুইবেকে অবস্থান করবেন। এরপর সেখান থেকেই তিনি টরন্টো যাবেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here