‘যুক্তরাষ্ট্রের আচরণ নির্যাতনমূলক ও মিথ্যাচারপূর্ণ’

0
33

আর্ন্তজাতিক ডেস্ক: যুক্তরাষ্ট্রের আচরণকে নির্যাতনমূলক ও মিথ্যাচারপূর্ণ উল্লেখ করে এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর জন্য আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে ইরান। ইরানের সঙ্গে পরমাণু চুক্তি রক্ষায় বিশ্বের বিভিন্ন দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের কাছে পাঠানো চিঠিতে দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী জাভেদ জারিফ এ-আহ্বান জানান।

এদিকে, আসন্ন ইউরোপ সফরে ইরানের সঙ্গে পরমাণু চুক্তি বাতিলে উদ্বুদ্ধ করতে ইউরোপীয় ইউনিয়ন নেতাদের সঙ্গে আলোচনা করবেন বলে জানিয়েছেন ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু।

ইরানের সঙ্গে পরমাণু চুক্তি থেকে যুক্তরাষ্ট্র বের হয়ে গেলেও চুক্তি রক্ষায় এখনো বদ্ধপরিকর স্বাক্ষরকারী অন্য দেশগুলো। রবিবার, ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জাভেদ জারিফ যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে অভিযোগ করে বলেন, চুক্তি থেকে যুক্তরাষ্ট্র বের হয়ে গিয়ে তেহরানের বিরুদ্ধে মিথ্যাচারে লিপ্ত হয়েছে। বাকি বিশ্বের প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের আচরণকে নির্যাতনমূলক উল্লেখ করে জাভেদ জারিফ বলেন, চুক্তি থেকে বের হয়ে গিয়ে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প আন্তর্জাতিক আইন লঙ্ঘন করেছেন। এর বিরুদ্ধে বিশ্ব নেতাদের প্রতিবাদ জানানোর আহ্বান জানান তিনি।

ইউরোপীয় ইউনিয়ন এই চুক্তির প্রতি পূর্ণ সমর্থনের কথা জানিয়েছে আগেই। এখন তাদের মতো পরিবর্তনে দেন দরবার কারা উদ্যোগ নিয়েছেন ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী বিনইয়ামিন নেতানিয়াহু। রবিবার জেরুজালেমে ইসরাইলের মন্ত্রিসভার বৈঠকে নেতানিয়াহু বলেন, তিনি আসন্ন ইউরোপ সফরে তিনি এ-ব্যাপারে ইইউ’র নেতাদের সঙ্গে আলোচনা করবেন।

ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী বিনইয়ামিন নেতানিয়াহু বলেন, ‘আসন্ন ইউরোপ সফরে আমি অ্যাঙ্গেলা মের্কেল, ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ এবং ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে’র সঙ্গে দেখা করব। আলোচনায় ইরানের সঙ্গে তাদের পরমাণু চুক্তির বিষয়টিই বেশি প্রাধান্য পাবে। তাদেরকে পরিষ্কার করে বলব, ইসরায়েল ইরানকে কখনোই পরমাণু সক্ষমতা অর্জন করতে দেবে না।’

এদিকে ইরান ইস্যুকে কেন্দ্র করে বিশ্বব্যাপী মেরুকরণ শুরু হয়েছে। রবিবার টেলিফোন আলাপে, মধ্যপ্রাচ্যে শান্তি প্রতিষ্ঠাসহ ইরান ইস্যুতে পারস্পরিক সহযোগিতার কথা জানিয়েছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে ও সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান। এ সময় সৌদি আরবে সম্ভাব্য ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র হামলা মোকাবিলায় দেশটির পাশে থাকার প্রতিশ্রুতি দেন থেরেসা মে।

ইরানের বিষয়ে সৌদি আরব আগ্রাসী অবস্থান ব্যক্ত করলেও কাতার বলেছে, তেহরানের সঙ্গে সামরিক কোনো দ্বন্দ্বে জড়াতে চায় না তারা। রবিবার, সিঙ্গাপুরে এশীয় দেশগুলোর ১৭তম নিরাপত্তা সম্মেলনে যোগ দিয়ে এ কথা জানান কাতারের উপ-প্রধানমন্ত্রী ও প্রতিরক্ষামন্ত্রী খালিদ বিন মোহাম্মদ আল আত্তিয়াহ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here