তৈমুর আমার থেকেও জনপ্রিয় : শর্মিলা ঠাকুর

0
17

বিনোদন ডেস্ক: সোশাল মিডিয়ার প্রিয় স্টার বেবি তৈমুর, এ নিয়ে কোনো সন্দেহ নেই। আর তার মা কারিনা কাপুরের মতে খ্যাতিতে অক্ষয় কুমারকেও হার মানাতে পারে এই খুদে। শুধুমাত্র কারিনাই নয়, বিখ্যাত অভিনেত্রী তৈমুরের দাদি শর্মিলা ঠাকুর পর্যন্ত স্বীকার করেছেন তৈমুর অত্যন্ত বিখ্যাত। কলকাতায় একটা ইভেন্ট প্রসঙ্গে ইন্ডিয়া টুডের ইন্টারভিউতে তৈমুরের ফ্যানবেস সম্পর্কে প্রশ্ন করলে শর্মিলা ঠাকুর বলেন, তৈমুর আমার থেকেও জনপ্রিয়।

২০১৬ সালের ডিসেম্বর মাসে কারিনা ও সাইফ আলী খানের সন্তান তৈমুরের জন্ম হয় এবং গত বছর ডিসেম্বরে সে তার প্রথম জন্মদিন পালন করে। বর্তমানে কারিনার সঙ্গে লন্ডনে ছুটি কাটাচ্ছে ছোট্ট তৈমুর।

সোশাল মিডিয়া তৈমুরকে অত্যন্ত ভালোবাসে। ইনস্টাগ্রামে তৈমুরের লন্ডনের ছুটি কাটানোর ছবি সকলের অত্যন্ত পছন্দ হয়েছে। কারিনা বা সাইফ আলী খান কারোরই সোশাল মিডিয়ায় অফিসিয়াল অ্যাকাউন্ট নেই তবে ফ্যানক্লাবের দৌলতে সব কিছুই উঠে আসছে সামনে।

মুম্বাইতে তৈমুর একটা প্লে-স্কুলে যাওয়া শুরু করেছে। তাকে প্রায়ই ফুপু সোহা আলী খানের মেয়ে ইনায়া এবং তুষার কাপুরের মেয়ে লক্ষ্যের সঙ্গে খেলা করতে দেখা যায়। এটা আর বলার প্রয়োজন নেই, পাপারাজ্জি সব সময় ছোট নবাবের ওপর নজর রেখেই চলেছে।

কারিনা কাপুর সম্প্রতি হিন্দুস্তান টাইমসের একটা ইন্টারভিউতে বলেছেন, আমার মনে হয় তৈমুরের নাম ধরে ডাকা হলে সে বুঝতে পারে কিন্তু আশপাশে ক্যামেরা আছে কি-না সেটা এখনও সে বোঝে না। আমার মনে হয় না ও বুঝতে পারে যে ওর ছবি তোলা হচ্ছে। ও এখনও এসবের জন্য অনেকটাই ছোট।

কারিনা যে কারণে ইন্টারভিউতে এ কথা বলেছেন তা হলো, সম্প্রতি একটা ভিডিওতে দেখা গেছে তৈমুরকে দেখেই ক্যামেরা পার্সনরা তার নাম ধরে ডাকা শুরু করেছে। আর নিজের নাম শুনেই ন্যানির কোল থেকে তৈমুর মাথা ঘুরিয়ে দেখার চেষ্টা করছে। কিন্তু ন্যানি পাপারাজ্জির প্রতি অত্যন্ত বিরক্ত হয়ে তাড়াতাড়ি সেই স্থান থেকে তৈমুরকে নিয়ে চলে যেতে দেখা যায়। ভিডিওটা অত্যন্ত ভাইরাল হয়।

‘ওর প্রতি অতিরিক্ত মনোযোগ দেখে আমার ভয় হয়। আমি যতবারই এসব ভাবি, আমার মনে হয় ওকে কালো টিপ লাগিয়ে দিই। আমি ওকে বাড়ি থেকে বের করতে চাই না। কিন্তু সেটা করলে বাড়াবাড়ি হয়ে যাবে। আমি নিজের আবেগ নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করি যাতে আমার ছেলে সাধারণভাবেই বেড়ে উঠতে পারে। কোনো চাপ ছাড়াই সুস্থভাবে বেড়ে ওঠা ওর প্রাপ্য,’ গণমাধ্যম মিড-ডে’কে আগেই বলেছিলেন কারিনা।

কারিনা এবং তৈমুরের সঙ্গে ছুটি কাটাতে সাইফ আলী খান লন্ডনে গিয়েছিলেন। গত সপ্তাহে তিনি মুম্বাই ফেরত এলেও মা-ছেলে লন্ডনে থেকে গেছেন। শেষবার কারিনাকে ‘বীর ডি ওয়েডিং’ ছবিতে দেখা গেছে।
সূত্র : এনডিটিভি

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here