‘আইন পেশাকে দরিদ্র জনগোষ্ঠীর সেবায় নিয়োজিত করুন’

0
11

ঢাকা: গতানুগতিক ধারার বাইরে আইন পেশাকে কিভাবে দেশের দরিদ্র জনগোষ্ঠীর সেবায় নিয়োজিত করা যায় সে বিষয়ে গুরুত্বারোপ করেছেন স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী।

শনিবার সকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবনে অনুষ্ঠিত ‘এন্টি জেনেরিক লার্নিং অ্যান্ড রেবেলিয়াস লইয়ারিং : রিফ্লেকশন অন লিগ্যাল এডুকেশন ইন বাংলাদেশ’ শীর্ষক গ্রন্থের প্রকাশনা অনুষ্ঠানে এই অভিমত ব্যক্ত করেন তিনি।

ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, শোষণমুক্ত ও বৈষম্যহীন সমাজ গঠন আমাদের সাংবিধানিক অঙ্গীকার। যেখানে সকলের জন্য ন্যায় বিচার সুনিশ্চিত হবে। সেই লক্ষ বাস্তবায়নে আমাদের ‘রেবেলিয়াস ল’ এর প্রয়োজন আছে।

মানবাধিকার কমিশনের প্রাক্তন চেয়ারম্যান এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আইন বিভাগের অধ্যাপক ড. মিজানুর রহমান রচিত ‘এন্টি জেনেরিক লার্নিং অ্যান্ড রেবেলিয়াস লইয়ারিং : রিফ্লেকশন অন লিগ্যাল এডুকেশন ইন বাংলাদেশ’ শীর্ষক গ্রন্থের প্রকাশনা অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান।

গ্রন্থ সম্পর্কে আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন বাংলাদেশ আইন কমিশনের সাবেক সদস্য অধ্যাপক ড. এম শাহ আলম এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় জাপানিজ স্টাডিজ বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. আবুল বারকাত।

‘এন্টি জেনেরিক লার্নিং অ্যান্ড রেবেলিয়াস লইয়ারিং : রিফ্লেকশন অন লিগ্যাল এডুকেশন ইন বাংলাদেশ’ শীর্ষক গ্রন্থে বাংলাদেশে আইন শিক্ষার ত্রুটি এবং গতানুগতিক ধারার বাইরে গিয়ে আইন পেশাকে কীভাবে দেশের দরিদ্র জনগোষ্ঠীর সেবায় নিয়োজিত করা যায় সে বিষয়ে আলোকপাত করা হয়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের সেন্টার ফর এ্যাডভান্স লিগ্যাল স্টাডিজ এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। গ্রন্থটি প্রকাশ করেছে ‘বিজয় প্রকাশ’।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী। এ ছাড়া ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আইন অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মো. রহমত উল্লাহ, বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের শিক্ষক, বিচারক, আইনজীবী প্রমুখ প্রকাশনা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here