প্লেবয় মডেলকে অর্থ প্রদান: ট্রাম্পের কথোপকথন ফাঁস

0
6

আর্ন্তজাতিক ডেস্ক: যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও তাঁর আইনজীবীর মধ্যে রেকর্ড করা একটি কথোপকথন গত মঙ্গলবার প্রচার করেছে সিএনএন। ট্রাম্পের সঙ্গে প্রণয়ের সম্পর্ক ছিল এমন এক প্লেবয় মডেলের মুখ অর্থ দিয়ে বন্ধ রাখার ব্যাপারে তাঁদের মধ্যে আলোচনা হচ্ছিল। ২০১৬ সালের নির্বাচনের মাত্র দুই মাস আগের কথোপকথন এটি।

জানা গেছে, কারেন ম্যাকডুগালস নামে ওই মডেলের সঙ্গে ট্রাম্পের সম্পর্ক ছিল ২০০৬ সালে। মাত্র ১০ মাস স্থায়ী হয় সম্পর্কটি। ওই সময় স্টর্মি ড্যানিয়েলস নামের এক পর্নো তারকার সঙ্গেও ট্রাম্পের সম্পর্ক ছিল। ম্যাকডুগালস নির্বাচনের আগে ন্যাশনাল ইনকোয়ারার নামে একটি সাময়িকীকে ট্রাম্পের সঙ্গে সম্পর্ক নিয়ে একটি সাক্ষাৎকার দেন। এর জন্য ওই সাময়িকী তাঁকে দেড় লাখ ডলার প্রদান করে।

ট্রাম্পের সঙ্গে তাঁর আইনজীবী মাইকেল কোহেনের কথোপকথনের মূল বিষয় এটিই ছিল। ইনকোয়ারারের কাছ থেকে ওই সাক্ষাৎকারটি কিনে নিতে চাইছিলেন ট্রাম্প। সাময়িকীর মালিক ডেভিড প্যাকার ট্রাম্পের বন্ধু ছিলেন। পরে অবশ্য ইনকোয়ারার আর ওই সাক্ষাৎকারটি প্রকাশ করেনি।

সিএনএনে প্রচারিত কথোপকথনটি এ বছরের শুরুর দিকে কোহেনের দপ্তর থেকে জব্দ করে এফবিআই। এতে কোহেনকে বলতে শোনা যায়, ‘আমাদের বন্ধু ডেভিডের কাছ থেকে ওই সব কিছু আনতে আমাকে একটি কম্পানি খুলতে হবে।’ এ সময় ট্রাম্প বলেন, ‘এর জন্য আমাদের কত দিতে হবে? ১৫০?’ ট্রাম্প আবার বলেন, ‘নগদ অর্থ দিয়ে দাও?’ এতে কোহেন নেতিবাচক জবাব দিলে ট্রাম্প বলেন, ‘চেক।’

কোহেন এখন আর ট্রাম্পের আইনজীবী হিসেবে কাজ করছেন না। প্রেসিডেন্টের বর্তমান আইনজীবী রুডি গিউলিয়ানির দাবি, অর্থ নিয়ে কথা হলেও কোনো লেনদেন হয়নি। প্রেসিডেন্ট কোনো অবৈধ কাজ করেননি। এর আগে ট্রাম্প দাবি করেছিলেন, ম্যাকডুগালসের সঙ্গে তাঁর কখনোই কোনো সম্পর্ক ছিল না।
সূত্র : বিবিসি

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here