নিউইয়র্কে বাংলাদেশ সোসাইটির নির্বাচন ২১ অক্টোবর

0
13

নিউইয়র্ক: নিউইয়র্কে বাংলাদেশ সোসাইটির নির্বাচন হবে ২১ অক্টোবর। সকাল ৯টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত ভোট গ্রহণ করা হবে ৫টি কেন্দ্রে। ২০১৯-২০২০ মেয়াদের জন্যে ১৯ সদস্যের কার্যকরী কমিটির প্রতিদ্বন্দ্বিতায় আগ্রহীরা মনোনয়নপত্র ক্রয় করতে পারবেন ১৯ ও ২০ আগস্ট। মনোনয়নপত্র জমা নেয়া হবে ২৬ আগস্ট। প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ৩০ আগস্ট। ৪ সেপ্টেম্বর চূড়ান্ত প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করা হবে। এবারের ভোটারের সংখ্যা ২৭৫১০।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বাংলাদেশ সোসাইটির অফিসে নির্বাচন কমিশনের সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানানো হয়। সভাপতি প্রার্থী-সাড়ে ৫ হাজার ডলার, সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট-সাড়ে ৪ হাজার ডলার, ভাইস প্রেসিডেন্ট-৪ হাজার ডলার, সাধারণ সম্পাদক-৪২০০ ডলার, সহকারি সাধারণ সম্পাদক-২৭০০ ডলার, ট্রেজারার-২৫০০ ডলার, সাংগঠনিক সম্পাদক-১৮০০ ডলার, বিভাগীয় সম্পাদক-১৫০০ ডলার এবং ৬টি নির্বাহী সদস্য পদের মনোনয়ন ক্রয়ের জন্যে লাগবে ১২০০ ডলার করে।

কমিশনের চেয়ারম্যান এস এম জামাল ইউ আহমেদ জানান, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠানে বদ্ধপরিকর আমরা। প্রতিটি কেন্দ্রে ভুয়া ভোটার প্রতিরোধে পরিচয় পত্র পরীক্ষা করা হবে দুই স্তরে। জাল আইডি ব্যবহারকারিকে আইন প্রয়োগকারি সংস্থার কাছে হস্তান্তর করা হবে। প্রতিটি কেন্দ্রের ভেতরে ও বাইরে সার্ভেইলেন্স ক্যামেরা বসানোর সিদ্ধান্তও রয়েছে।

তিনি জানান, ৪৩ বছরের পুরনো বাংলাদেশ সোসাইটির সর্বশেষ নির্বাচনে ১৮ হাজার ভোটার ছিল। এবার প্রায় ১০ হাজার বেড়েছে। অর্থাৎ গোটা কম্যুনিটির ব্যাপক সম্পৃক্ততা ঘটেছে এই সংগঠনে। বাংলাদেশের বাইরে সম্ভবত: এত অধিকসংখ্যক ভোটারের সমাগম প্রবাসের আর কোন সংগঠনে ঘটেনি। ভোটার তালিকা থাকবে নির্বাচন কমিশনের ওয়েবসাইটে। প্রার্থী তালিকাসহ যাবতীয় তথ্য ওয়েবসাইটে দেয়া হবে। এবার ভোট গৃহিত হবে নতুন মেশিনে নতুন পদ্ধতিতে। এজন্যে বিভিন্ন অঞ্চলে ওয়ার্কশপের ব্যবস্থা করা হবে।

মিডিয়ার সাথে বিশাল এ কর্মযজ্ঞের সমন্বয় ঘটাবেন নির্বাচন কমিশনার মোহাম্মদ এ হাকিম মিয়া, মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন এবং মোহাম্মদ আর সরকার। ৭ সদস্যবিশিষ্ট নির্বাচন কমিশনের অপর ৩ কমিশনার হলেন কাউসারুজ্জামান কয়েস, মহিউদ্দিন দেওয়ান এবং খোকন মোশারফ।

৫ কেন্দ্রে ভোট গ্রহণসহ নানা খাতে খরচের আনুমানিক একটি ধারণা দেন কমিশনের চেয়ারম্যান। তবে তা দু’লাখ ডলারের বেশি হবে না বলেও উল্লেখ করেন। সংবাদ সম্মেলন সঞ্চালনা করেন অন্যতম কমিশনার মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন।

বাংলাদেশ সোসাইটির আসন্ন নির্বাচনে দুটি প্যানেলের আবির্ভাব ঘটেছে। বর্তমান সাধারণ সম্পাদক রুহুল আমিন সিদ্দিকী একই পদে ও কোষাধ্যক্ষ মোহাম্মদ আলী প্রার্থী হচ্ছেন সাধারণ সম্পাদক পদে প্রতিদ্বন্দ্বী প্যানেল থেকে। ‘কাজী নয়ন-মোহাম্মদ আলী’ এবং ‘রব মিয়া-রুহুল সিদ্দিকী’ প্যানেলের বাইরে একক প্রার্থী হিসেবে সভাপতি পদে জয়নাল আবেদীন এবং ওসমান চৌধুরীর নাম শোনা যাচ্ছে। সোহেল নামক আরেক তরুণ ব্যবসায়ীও পোস্টার লাগিয়েছেন সাধারণ সম্পাদক পদে প্রার্থী হিসেবে। তবে ‘কাজী নয়ন-মোহাম্মদ আলী’ এবং ‘রব মিয়া-রুহুল সিদ্দিকী’ প্যানেলের প্রায় সকল প্রার্থীই গত দুই সপ্তাহ যাবত প্রচারণা শুরু করেছেন। দলমত নির্বিশেষে সকল অনুষ্ঠানেই তারা হাজির হচ্ছেন।

এদিকে, নির্বাচনী তফসিল ঘোষণার সংবাদ সম্মেলনের প্রাক্কালেই কমিশনের কাছে ভোটার তালিকা হস্তান্তর করা হয় বাংলাদেশ সোসাইটির কার্যকরী কমিটির পক্ষ থেকে। এসময় সোসাইটির সভাপতি কামাল আহমেদ, জ্যেষ্ঠ সহ-সভাপতি আব্দুর রহিম হাওলাদার, সহ-সভাপতি আবুল খায়ের খালেক, সেক্রেটারি রুহুল আমিন সিদ্দিকী, কোষাধ্যক্ষ-মোহাম্মদ আলী, সাংস্কৃতিক সম্পাদিকা-মণিকা রায়, সাহিত্য সম্পাদক নাসিরউদ্দিন আহমেদ, ক্রীড়া ও আপ্যায়ন সম্পাদক-নওশাদ হোসেন, নির্বাহী সদস্য আজাদ বাকির, আবুল কাশেম চৌধুরী এবং সারওয়ার খান বাবু উপস্থিত ছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here