মিয়ানমার সেনাবাহিনীর ওপর যুক্তরাষ্ট্রের নতুন নিষেধাজ্ঞা

0
12

আর্ন্তজাতিক ডেস্ক: মিয়ানমারের রাখাইনে সংখ্যালঘু রোহিঙ্গাদের ওপর দমন-পীড়নের ঘটনায় দেশটির চার সামরিক ও পুলিশ কমান্ডারসহ দুটো সামরিক ইউনিটের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে যুক্তরাষ্ট্র। তবে মিয়ানমারের সামরিক বাহিনীর সর্বোচ্চ পর্যায়ের কেউ এ নিষেধাজ্ঞার আওতায় পড়েনি।

গতকাল শুক্রবার এ নিষেধাজ্ঞা আরোপের কথা জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের অর্থ মন্ত্রণালয়।

রোহিঙ্গা নিপীড়নের জবাবে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে এটিই এ পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রের নেওয়া সবচেয়ে কঠোর পদক্ষেপ।

যে দুটি ইউনিটের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে সেগুলো হলো পদাতিক বাহিনীর ৩৩ এবং ৯৯ তম ডিভিশন। গত জুনে বার্তা সংস্থা রয়টার্স এক বিশেষ প্রতিবেদনে মিয়ানমারের পদাতিক বাহিনীর এ দুই ডিভিশনের ভূমিকার পুরো চিত্রই তুলে ধরে।

গত বছর রোহিঙ্গাদের ওপর মিয়ানমারের অভিযান শুরুর পর আগস্ট থেকে ৭ লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়। তারা জানায়, রোহিঙ্গা অধ্যুষিত এলাকাগুলোতে সেনা সদস্যরা নির্বিচারে গুলি চালিয়ে মানুষ মেরেছে।

তবে রোহিঙ্গা বিরোধী প্রচারকে মানবতার বিরুদ্ধে অপরাধ কিংবা গণহত্যাও আখ্যা দেয়নি ট্রাম্প প্রশাসন। গত ডিসেম্বরে যুক্তরাষ্ট্র মিয়ানমারের মেজর জেনারেল মাউং মাউং সোয়ের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে। এবার তালিকায় যোগ হলো- সামরিক কমান্ডার অং কায়াও জ, খিন মাউং সোয়ে, খিন হায়িং এবং সীমান্ত পুলিশ কমান্ডার থুরা সান লিউইন কে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here