চুরি হয়নি, সিস্টেম লসের কারণে কয়লার ঘাটতি : সাবেক এমডি

0
28

ঢাকা: বড়পুকুরিয়া কয়লা লোপাটের ঘটনায় বুধবার বড়পুকুরিয়া কোল মাইনিং কোম্পানি লিমিটেডের (বিসিএমসিএল) সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) হাবিব উদ্দিন আহমদকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে দুদক। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে সাংবাদিকদের কাছে তিনি দাবি করেন, বড়পুকুরিয়া কয়লা খনিতে কয়লা চুরি হয়নি। সিস্টেম লসের কারণে কয়লার ঘাটতি।

দুদক সূত্রে জানা যায়, এ ঘটনায় বুধবার রাজধানীর সেগুনবাগিচায় দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) প্রধান কার্যালয়ে বিসিএমসিএল এর সাবেক এমডি হাবিব উদ্দিন আহমদকে ৬ ঘন্টা জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও দুদকের উপপরিচালক সামছুল আলম।

হাবিব উদ্দিন আহমদ আরো দাবি করেন, তাঁরা কোনো দুর্নীতি করেননি এবং কয়লা চুরি হয়নি। তদন্তের পরই প্রমাণ হবে তাঁরা দুর্নীতি করেছেন কি না। তিনি কয়লার এই সিস্টেম লসের বিষয়ে আন্তর্জাতিক বিশেষজ্ঞদের দিয়ে পরীক্ষা–নিরীক্ষারও দাবি জানান।

সূত্র আরো জানায়, এদিন সাবেক এই এমডি ছাড়াও আরও সাত কর্মকর্তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। তারা হলেন- সাবেক দুই কোম্পানি সচিব আবুল কাশেম প্রধানিয়া ও মোশারফ হোসেন সরকার, মহাব্যবস্থাপক (জেনারেল সার্ভিস) মাসুদুর রহমান হাওলাদার, ব্যবস্থাপক (প্রোডাকশন ম্যানেজমেন্ট) অশোক কুমার হালদার, ব্যবস্থাপক (মেইনটেন্যান্স অ্যান্ড অপারেশন) আরিফুর রহমান, ব্যবস্থাপক (ডিজাইন, কন্সট্রাকশন অ্যান্ড মেইনটেন্যান্স) জাহিদুল ইসলাম ও উপব্যবস্থাপক (সেফটি ম্যানেজমেন্ট) একরামুল হক।

এ ছাড়াও একই ঘটনায় গতকাল মঙ্গলবার জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় আরো আটজনকে। এরা হলেন- মহাব্যবস্থাপক (মাইন অপারেশন) আবু তাহের মো. নুরুজ্জামান চৌধুরী, উপমহাব্যবস্থাপক এ কে এম খালেদুল ইসলাম, উপব্যবস্থাপক (মেইনটেন্যান্স অ্যান্ড অপারেশন) মোরশেদুজ্জামান, উপব্যবস্থাপক (প্রোডাকশন ম্যানেজমেন্ট) হাবিবুর রহমান, উপব্যবস্থাপক (মাইন ডেভেলপমেন্ট) জাহেদুর রহমান, উপব্যবস্থাপক (ভেন্টিলেশন ম্যানেজমেন্ট) সত্যেন্দ্র নাথ বর্মণ, ব্যবস্থাপক (নিরাপত্তা) সৈয়দ ইমাম হাসান ও উপমহাব্যবস্থাপক (মাইন প্ল্যানিং অপারেশন) জোবায়ের আলীকে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here