সরকার নীতির প্রশ্নে কোনো চাপের কাছেই নতি স্বীকার করবে না ছাত্রলীগের আলোচনা সভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

0
9

ঢাকা: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিরাপদ সড়কের দাবিতে স্কুল শিক্ষার্থীদের চলমান আন্দোলনকে ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করার ক্ষেত্রে নেপথ্য ব্যক্তিদের গ্রেপ্তার প্রসঙ্গে বলেছেন, তথাকথিত সুশীল সমাজের একটি অংশ এখন গ্রেপ্তার হওয়া ষড়যন্ত্রকারীদের ছাড়াতে মায়া কান্না করছে, এমনকি বৈশ্বিকভাবেও সরকারের ওপর চাপ সৃষ্টির অপচেষ্টা চালাচ্ছে। তিনি বলেন, কিন্তু সবার একটা বিষয় অবশ্যই মাথায় রাখা উচিত সরকার নীতির প্রশ্নে কোনো চাপের কাছেই নতি স্বীকার করবে না।

শোকের মাস আগস্টের শেষ দিনে শুক্রবার বিকেলে গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশ ছাত্রলীগের শোক দিবসের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির ভাষণে একথা বলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, যুদ্ধাপরাধী এবং বঙ্গবন্ধুর খুনিদের প্রেতাত্মারা এখন দেশের শান্তি ও প্রগতির বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র চালিয়ে যাচ্ছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, কুচক্রী মহল ও তথাকথিত কিছু সুশীল সমাজের প্রতিনিধি এবং কতিপয় বুদ্ধিজীবী দুজন স্কুল শিক্ষার্থীর বাসচাপায় মর্মান্তিক মৃত্যুকে কেন্দ্র করে বিক্ষোভকারী কোমলমতিদের অনভূতিকে কাজে লাগিয়ে রাজনৈতিক উদ্দেশ্য হাসিলের পাঁয়তারা করেছিল।

তিনি বলেন, তারা তাদের ঘাড়ে পা রেখে ক্ষমতায় যাওয়ার চক্রান্ত করেছিল। কিন্তু এর ফলে কোমলমতিদের বড়ধরনের কোনো ক্ষতি হয়ে যেতে পারে তা তারা চিন্তা করেনি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ আমরাই করে দিয়েছি। সেই আধুনিক তথ্য প্রযুক্তির সুযোগ নিয়ে ষড়যন্ত্রকারীরা সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে মিথ্যা তথ্য সরবরাহ করে ফায়দা লুটতে চেয়েছিল।

বাংলাদেশ ছাত্রলীগ সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন এবং সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানীও অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন।

প্রধানমন্ত্রী ছাত্রলীগ নেতৃবৃন্দকে পড়ালেখায় মনোনিবেশের পাশাপাশি পদের প্রতি মোহ থেকে নয় আদর্শ ভিত্তিক রাজনীতিতে আত্মনিবেদন করার আহবান জানিয়ে বলেন, তিনি এবং তাঁর ভাই শেখ কামাল ও ছাত্রলীগের রাজনীতি করেছেন। একজন কর্মীর মত কাজ করেছেন, যে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে তা সম্পাদন করেছেন। কিন্তু পদের দিকে তাকাননি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here