সমকামী তরুণীদের বেত্রাঘাত করা উচিত হয়নি : মাহাথির

0
8

আর্ন্তজাতিক ডেস্ক: সম্প্রতি মালয়েশিয়ার টেরেংগানু প্রদেশে সমকামিতার অভিযোগে অভিযুক্ত দুই তরুণীকে জনসম্মুখে বেত্রাঘাত করা হয়েছে। গত সোমবার (৩ আগস্ট ২০১৮) এই ঘটনা ঘটে। এবার এই ইস্যুতে মুখ খুললেন মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ।

মাহাথির মোহাম্মদ বলেন, ওই দুই তরুণীকে বেত্রাঘাত করায় ইসলামি ন্যায়বিচার প্রতিফলিত হয়নি। দেশটির মন্ত্রিপরিষদ মনে করে, টেরেংগানু প্রদেশে সমকামিতার অভিযোগে অভিযুক্ত দুই তরুণীকে বেত্রাঘাতের বিষয়ে একটি নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে। এতে ইসলামকে কেউ কেউ অন্য দৃষ্টিতে দেখতে পারেন।

তিনি আরও বলেন, এ ইস্যুতে মন্ত্রিপরিষদ ৫ আগস্ট বুধবার আলোচনা করেছে। সেখানে বলা হয়েছে, এই শাস্তির মধ্য দিয়ে ন্যায়বিচারের মানদণ্ড প্রতিফলিত হয়নি। এমনকি ইসলামের প্রতি সহানুভূতিও প্রকাশ পায়নি।

মাহাথির বলেন, মন্ত্রিপরিষদ মনে করে ওই তরুণীরা যা করেছিলেন তা ছিল তাদের প্রথম অপরাধ। তাই প্রথমে তাদেরকে উপদেশ দেয়া ছিল বেশি যথাযথ। তাদেরকে প্রথমবারেই বেত্রাঘাতের শাস্তি দেয়া উচিত হয়নি।

বৃহস্পতিবার এ বিষয়ে একটি ভিডিও পোস্ট করে মাহাথির মোহাম্মদ বলেন, আমরা মনে করি ঘটনা যদি এমনই হয় তখন সুনির্দিষ্ট অবস্থার প্রেক্ষিতে কিছু বিবেচনা রাখা উচিত। সেখানে ইসলামের অধীনে আমরা হালকা শাস্তি দিতে পারি।

তিনি আরও বলেন, এটা প্রদর্শন করা খুবই গুরুত্বর্পূণ যে ইসলাম কোনও কঠোর ধর্ম নয়। এমন কঠোরতার পথ দেখায় না ইসলাম। যখন আমরা কোনও কাজ শুরু করি তখন মহান আল্লাহর নাম নিয়ে বিসমিল্লাহির রহমানির রাহিম বলে শুরু করি।

মন্ত্রিপরিষদের সিদ্ধান্ত হলো এবং আমরা আশা করি ইসলামের বিষয়ে আমাদেরকে আরও সতর্ক হতে হবে। দেখাতে হবে যে, ইসলাম এমন একটি ধর্ম যেখানে সমঝোতা ও বিবেচনা কাজ করে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here