আবারো রাজনীতির মাঠে বারাক ওবামা

0
26

আর্ন্তজাতিক ডেস্ক: নীরবতা ভেঙ্গে আঠারো মাস পর আবারো রাজনীতির মাঠে যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। শুক্রবার ইউনিভার্সিটি অব ইলিনয়ের আরবানা ক্যাম্পইন ছাত্র-শিক্ষকদের উদ্দেশ্যে ভাষণে প্রথমবারের মতো নাম ধরে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধে ক্ষমতার অপব্যবহারের অভিযোগ করেন। একই সঙ্গে ক্ষমতাসীন রিপাবলিকান পার্টিরও তীব্র সমালোচনা করেন তিনি। ব্যাখ্যা করেন আবারও রাজনীতির মাঠে আসার কারণ।

সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা বলেন, ‘সাবেক প্রেসিডেন্ট হিসেবে নয়, একজন উদ্বিগ্ন ও সচেতন নাগরিক হিসেবে আমি কথা বলার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এটা এমন এক সময়, যখন আমেরিকার প্রতিটি নাগরিককে ঠিক করতে হবে, সে কে এবং কোন আদর্শের পক্ষে সে থাকবে।’

ক্ষমতাসীনদের সমালোচনা করে তিনি বলেন, রিপাবলিকান কংগ্রেস একজন নিয়ন্ত্রণহীন প্রেসিডেন্টের কার্যাবলী নজরদারিতে ব্যর্থ হয়েছে। ট্রাম্প প্রশাসনের কর্মকাণ্ড মার্কিন মিত্রদের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের সম্পর্কের অবনতি ঘটিয়েছে, পাশাপাশি ওয়াশিংটনের ওপর রাশিয়ার প্রভাব বাড়িয়ে দিয়েছে বলে অভিযোগ করেন তিনি। ট্রাম্পের নীতিহীন কর্মকাণ্ডের লাগাম টানতে ডেমোক্রেট সংখ্যাগরিষ্ঠতাসম্পন্ন কংগ্রেস প্রতিষ্ঠায় সমর্থক ও ভোটারদের প্রতি আহ্বান জানান ওবামা।

বারাক ওবামা বলেন, বিপজ্জনক সময় চলছে এখন। আমেরিকার গণতন্ত্র হুমকির মুখে। দেশ ও দেশের গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠানগুলো রক্ষায় প্রত্যেককে সঠিক দল ও প্রার্থীকে ভোট দিতে হবে। ট্রাম্প যেভাবে রাজনৈতিক প্রতিপক্ষকে শাস্তি দিতে বিচার বিভাগকে ব্যবহারে আগ্রহী এবং গণমাধ্যমকে ঢালাওভাবে গণশত্রু হিসেবে চিহ্নিত করছেন তা কোনভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়।

বর্ণবাদবিরোধী অবস্থান নিতে ব্যর্থ হওয়ায়ও বর্তমান প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের কড়া সমালোচনা করেন ওবামা।

ডোনাল্ড ট্রাম্পকে গণতন্ত্রের জন্য হুমকি আখ্যা দিয়ে আসন্ন মধ্যবর্তী নির্বাচনে মার্কিন জনগনকে ডেমোক্র্যাট প্রার্থীদের ভোট দেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। তিনি বলেন, রিপাবলিকান সংখ্যাগরিষ্ঠ কংগ্রেস, নিয়ন্ত্রণহীন এই প্রেসিডেন্টের কার্যাবলী নজরদারিতে ব্যর্থ হয়েছে, তাই তাকে নিয়ন্ত্রণের জন্য সংখ্যাগরিষ্ঠ ডেমোক্র্যাট কংগ্রেস প্রতিষ্ঠা করা প্রয়োজন। তবে, শ্বেতাঙ্গ শ্রেষ্ঠত্ববাদীদের কাছে ওবামা এখনো বিতর্কিত হওয়ায় ট্রাম্প আশাবাদী, ওবামার কারণেই রিপাবলিকান পার্টিকে দল বেঁধে ভোট দেবে জনগণ।

ইলিয়ন বিশ্ববিদ্যালয়ে ওবামা যখন ভাষণ দিচ্ছেন তখন সরকারি বিমানে ছিলেন ট্রাম্প। এ বিষয়ে তিনি বলেন, ওবামার ভাষণ বেশিদূর শুনতে পারেননি, তার আগেই তিনি ঘুমিয়ে পড়েন। রিপাবলিকানদের কাছে ওবামা বিতর্কিত হওয়ায় ট্রাম্প আশাবাদী, মধ্যবর্তী নির্বাচনে রিপাবলিকান সমর্থক ও শ্বেতাঙ্গ শ্রেষ্ঠত্ববাদীরা তার দলের প্রার্থীদের দলবেঁধে ভোট দেবে।

আগামী ৬ নভেম্বর মার্কিন মধ্যবর্তী নির্বাচন। প্রতিনিধি পরিষদে সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জনে ডেমোক্রেটদের চাই ২৩টি আসন। আর সিনেটে সংখ্যাগরিষ্ঠতার জন্য প্রয়োজন দুটি। এ অবস্থায়, নির্বাচনী প্রচারণায় ওবামার অংশগ্রহণ স্বপ্ন দেখাচ্ছে ডেমোক্রেটদের। ইতোমধ্যে, নির্বাচনের আগের কয়েক সপ্তাহ প্রচারণার পাশাপাশি তহবিল সংগ্রহে অংশ নেয়ারও ঘোষণা দিয়েছেন ওবামা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here