বিশ্বমানের আধুনিক ডিজিটাল ম্যাপিং সিস্টেম চালু

0
7

ঢাকা: আইন বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক জানিয়েছেন, বাংলাদেশ জরিপ অধিদপ্তরের পুরাতন এনালগ ম্যাপিং সিস্টেম পরিবর্তন করে বিশ্বমানের আধুনিক ডিজিটাল ম্যাপিং সিস্টেম চালু করা হয়েছে। অধিদপ্তরের জনবলকে দেশে-বিদেশে পর্যাপ্ত প্রশিক্ষণ প্রদানের মাধ্যমে ডিজিটাল ম্যাপ প্রণয়নের জন্য দক্ষ করে তোলা হয়েছে। মিরপুরের ধামালকোটে বাংলাদেশ জরিপ অধিদপ্তরের অফিস ভবনে ডিজিটাল ফটোগ্রামেট্রি, জিআইএস এবং ডিজিটাল কার্টোগ্রাফি ল্যাব সম্বলিত আধুনিক ম্যাপিং সেন্টার স্থাপন করা হয়েছে।

গতকাল মঙ্গলবার জাতীয় সংসদ অধিবেশনে সরকার দলীয় সংসদ সদস্য নুরুন্নবী চৌধুরীর প্রশ্নের জবাবে তিনি এ তথ্য জানান। ডেপুটি স্পিকার অ্যাডভোকেট ফজলে রাব্বি মিয়ার সভাপতিত্বে অধিবেশনে মন্ত্রী আরো জানান, ডিজিটাল ম্যাপ প্রণয়নের জন্য আকাশ-আলোকচিত্র ধারণ, সার্ভার, ওয়ার্কস্টেশন, সফটওয়্যার, প্রিন্টিং প্রেস স্থাপন ইত্যাদি কাজ সম্পন্ন করা হয়েছে। বর্তমানে বাংলাদেশ জরিপ অধিদপ্তরের সকল ম্যাপ ভূ-উপাত্ত ও জিআইএস ডাটা ডিজিটাল পদ্ধতিতে প্রণয়ণ করে সংরক্ষণ করা হচ্ছে। সকল সরকারি/বেসরকারি প্রতিষ্ঠান/ব্যক্তির বিভিন্ন কাজে বিশেষ করে যে কোনো প্রকল্পভিত্তিক কাজের জন্য চাহিদাকৃত ভূ-উপাত্ত/ডিজিটাল ম্যাপ হার্ডকপি/সফটকপি সরকারি গেজেট দ্বারা নির্ধারিত মূল্যে সরবরাহ করা হচ্ছে।

আইনমন্ত্রী তিনি জানান, বর্তমানে ডিজিটাল ম্যাপিং সেন্টারে স্থাপিত ওয়েব সার্ভার হতে অনলাইনের মাধ্যমে ম্যাপ/ভূ-উপাত্তের ডিজিটাল সফটকপি বাংলাদেশের যেকোনো প্রান্ত হতে বিকাল/রকেট/শিওরক্যাশ-এর মাধ্যমে ব্যবহারকারীগণ সংগ্রহ করতে পারছেন। এই পদ্ধতিতে তথ্য/উপাত্ত সরবরাহ করার ফলে দেশের বিভিন্ন কাজের পরিকল্পনা প্রণয়ন ও কার্যসম্পাদনের সহজতর হয়েছে এবং কাজের গতিশীলতা অনেক বৃদ্ধি পেয়েছে।

অপর এক প্রশ্নের জবাবে আইনমন্ত্রী জানান, মিয়ানমার থেকে অর্জিত বঙ্গোপসাগরে বিশাল সমুদ্রসীমা অর্জিত হয়েছে। এই বিশাল সমুদ্রসীমায় জরিপ চালাতে বিশেষায়িত একটি জাহাজ প্রয়োজন। ইতিমধ্যে এই জাহাজটি ক্রয়ের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। জাহাজটি এলেই সমুদ্রসীমায় জরিপ কার্য পরিচালনা করা সম্ভব হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here