দৃষ্টিশক্তি ভালো রাখতে সেরা ৬ টি খাবার

0
16

স্বাস্থ্য ডেস্ক:
বয়সের সাথে সাথে দৃষ্টি শক্তি কমে আসে, সেটা আমরা প্রায় সবাই-ই জানি। কিন্তু খেয়াল করেছেন কি, কেউ কেউ অনেক বৃদ্ধ হয়ে যাবার পরও চশমার ধারই ধারেন না।
গবেষকরা বলেন, এর পেছনে রয়েছে খাদ্যাভ্যাসের দারুণ এক প্রভাব। কিছু কিছু খাবার নিয়মিত গ্রহণ করলে তা দৃষ্টিশক্তি ভালো রাখতে সাহায্য করে এবং বয়েসের সাথে সাথে চোখের যে ক্ষতি তার গতি কমিয়ে আনতে সাহায্য করে। অথচ এই খাবারগুলো কিন্তু মোটেই দামী নয়। খুব সহজলভ্য এবং সস্তাও!
জেনে নিন এমনই ৬ টি সেরা খাবারের কথা।
১। গাজর
মূলত শীতকালের সবজি হলেও এখন কিন্তু এটি প্রায় সারাবছরই মেলে। এটি চোখের জন্যে ভালো কেননা, সব কমলা রঙের সবজি ও ফলই তাদের এই রংটা পায় বিটাক্যারোটিন থেকে। এটি চোখের ভেতর দিয়ে আলোর প্রবাহকে শোষণ করে ও রাতে কম আলোতেও দেখার শক্তি বাড়ায়।
চেষ্টা করুন প্রতিদিন একটি হলেও গাজর খেতে। অথবা মিষ্টিকুমড়া, মিষ্টি আলুর সাথে গাজর সামান্য অলিভ অয়েল দিয়ে রান্না করেও খেতে পারেন। কারণ অলিভ অয়েল সবজির ভারী কোষপ্রাচীরগুলোকে সহজে ভেঙ্গে দেয় ও দেহকে সেগুলো থেকে সহজে পুষ্টি গ্রহণে সাহায্য করে।
২। পালং শাক
অন্যান্য সবুজ সবজি যেমন ব্রকলির মতন পালং শাকও জিয়ানথিন ও লুটেইন এ পরিপূর্ণ। লুটেইন উপাদানটি চোখে পিগমেন্ট তোইরী করে যা ক্ষতিকর নীল রশ্মি থেকে চোখকে বাঁচায়।যা বয়েসের সাথে সাথে চোখকে অন্ধত্বের দিকে নিয়ে যাবার জন্যে দায়ী।
প্রতিদিন মাত্র ১০০ গ্রাম পালং শাক সালাদ অথবা একটুখানি লবন দিয়ে সেদ্ধ করে খেয়ে নিন। চোখ ভালো থাকবে প্রত্যাশার চেয়েও অনেক বেশী সময় ধরে।
৩। কমলা
ভিটামিন সি তে পরিপূর্ণ এই ফলটির উপকারিতার কোনই শেষ নেই। গবেষণায় দেখা গেছে যেসকল নারীরা ১০ বছরেরও ব্যাসই সময় ধরে প্রতিদিন একটি করে কমলা খেয়েছেন তাদের অন্ধত্বের পরিমাণ ৬৪% কমে গেছে। প্রতিদিন একটি করে কমলা খাবারের তালিকায় রাখুন আর সেই সাথে যদি একটি টমেটো থাকে, তবে তো ষোলকলা পূর্ণ!
৪। তৈলাক্ত মাছ
টুনা, স্যামন, রুই ইত্যাদি তৈলাক্ত মাছগুলো ফ্যাটি এসিডে পরিপূর্ণ, যা চোখের রেটিনার চারপাশে থাকা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আমেরিকান ন্যাশনাল আই ইনস্টিটিউট এর গবেষণা অনুযায়ী ফ্যাটি এসিড প্রাপ্তবয়স্কদের এটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ! সপ্তাহে দু বার এই মাছ খাবারের তালিকায় তো রাখাই যায়!
৫। গরুর মাংস
অদ্ভুত শোনালেও গরুর মাংসে থাকা প্রচুর পরিমাণে জিঙ্ক দৃষ্টিশক্তির জন্যে গুরুত্বপূর্ণ! কেননা, জিঙ্ক ভিটামিন এ কে লিভার থেকে নিঃসৃত হতে সাহায্য করে। তাছাড়া জিঙ্কের অভাবে অন্ধত্বের সম্ভাবনা বেড়ে যায়।। সপ্তাহে ২ বার পরিমাণে অল্প গরুর মাংস আপনার চোখকে ভালো রাখবে।
৬। আমন্ড
এতে থাকা ভিটামিন ই চোখের ক্রমাগত দৃষ্টিশক্তি হারিয়ে যাওয়াকে রোধ করে। বেশী নয়, প্রতিদিন একটি করে আমন্ড খাওয়াই যথেষ্ট!
খাদ্যাভাসে কিছু খাবার যোগ করে চোখকে ভালো রাখুন দীর্ঘ সময় ধরে। সুস্থ থাকুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here