লিভারপুলকে হারিয়ে ২৬ বছর পর প্রথম জয়!

0
6

স্পোর্টস ডেস্ক: দলের নাম ‘রেড স্টার বেলগ্রেড’। চ্যাম্পিয়নস লিগের যারা খোঁজ খবর রাখেন, তাদের কাছেও এই দলের নাম অপরিচিতই ঠেকবে। সেটাই স্বাভাবিক। কারণ নিচের সারির ক্লাবটি তেমন পরিচিতই নয়। আর এই পচা শামুকেই পা কাটল লিভারপুলের! সার্বিয়ান ক্লাবটির কাছে ২-০ গোলে হতাশাজনক ভাবে পরাজিত হয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের গ্রুপ পর্ব থেকে ছিটকে পড়ায় শঙ্কায় পড়েছে গতবারের রানার্স-আপ দলটি।

১৯৯১ সালের ইউরোপিয়ান কাপের শিরোপা জয়ের পর থেকে রেড স্টার আর কখনই চ্যাম্পিয়ন্স লিগের বাছাই পর্বের বাঁধা পেরুতে পারেনি। কিন্তু ঘরের মাঠের সমর্থকদের বাঁধভাঙ্গা উচ্ছাসে সার্বিয়ান চ্যাম্পিয়নরা কাল হয়ে উঠেছিল অপ্রতিরোধ্য। গত মাসে নাপোলির কাছে পরাজিত হবার পর এই নিয়ে গ্রুপ পর্বে দ্বিতীয় পরাজয়ের মুখ দেখল ইংলিশ জায়ান্টরা।

গত বছরের ফাইনালিস্টদের শুরুটাও মোটেই ভালো হয়নি। আর্সেনালের বিপক্ষে শনিবার ১-১ গোলের ড্রয়ের ম্যাচটি থেকে তিনটি পরিবর্তন করে ক্লপ মূল একাদশ সাজিয়েছিলেন। তারই ধারাবাহিকতায় বেঞ্চে ছিলেন রবার্তো ফিরমিনো, আক্রমনভাগে তাই ক্লপ আস্থা রেখেছিলেন ড্যানিয়েল স্টুরিজের ওপর।

১৮ মিনিটে স্টুরিজ গোলের সহজ সুযোগ নষ্ট করেন। চার মিনিট পর মার্কো মারিনের কর্নার থেকে পাভকোভ ভীষণ এক হেডে স্বাগতিকদের এগিয়ে দেন। ৭ মিনিট পর পাভকোভ প্রায় একক প্রচেষ্টায় শক্তিশালী শটে লিভারপুল গোলকিপার অ্যালিসন বেকারকে পরাস্ত করে ব্যবধান দ্বিগুণ করলে ৫৫ হাজার স্বাগতিক দর্শক উল্লাসে ফেটে পড়ে।

বিরতির পর ক্লপ তার প্রথম ভুল বুঝতে পেরে ফিরমিনো ও জো গোমেজকে মাঠে নামান। সাদিও মানে ভীষণ এক সুযোগ হাতছাড়া করলে গোল পায়নি লিভারপুল। গত দুটি ইউরোপীয়ান ম্যাচে পিএসজি ও লিভারপুলের কাছে বড় ব্যবধানে বিধ্বস্ত রেড স্টার দুই ম্যাচ মিলিয়ে ১০ গোল হজম করেছিল। কিন্তু ঘরের মাঠে তারা যেন এক ভিন্ন ক্লাব হিসেবে মাঠে নামে। নাপোলির সাথে গোলশূন্য ড্র করার পর এবার লিভারপুলকে পরাজিত করল।

রাজনৈতিক অস্থিরতার কারনে জিহার্দান শাকিরিকে ইংল্যান্ডে রেখে আসার সিদ্ধান্ত নিয়ে বেশ প্রশ্নের সম্মুখীন হয়েছে লিভারপুল। সুইস এই আন্তর্জাতিক তারকার অনুপস্থিতি কাল ভীষণভাবে অনুভব করেছে অল রেডসরা।

ম্যাচ শেষে লিভারপুল বস জার্গেন ক্লপ বলেছেন, ‘ছেলেরা আজ আমাকে হতাশ হয়েছে। আমিও ভীষণ হতাশ, আমাদের আরো ভালো খেলা উচিত ছিল। আমাদের অবশ্যই ভালো খেলতে হবে কারণ আমরা এত খারাপ দল নই। কিন্তু আজ তার কিছুই পারেনি। তারা আজকের ম্যাচে অনেকগুলো সেট পিস আক্রমন করেছে, আর তার থেকেই দুই গোল আদায় করে নিয়েছে। পুরো স্টেডিয়ামের পরিবেশ আজ ভিন্ন ছিল। রেড স্টার সেটা অনুভব করেছে। আমাদের শুধুমাত্র পরিস্থিতির সামাল দিতে হয়েছে।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here