‘বৈশ্বিক অভিবাসন কম্প্যাক্ট বাস্তবায়নের সময় এসেছে’

0
13

নিউইয়র্ক: বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি ও রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেন বলেছেন, অভিবাসন সংক্রান্ত নিউইয়র্ক ডিক্লারেশন গ্রহণের পর আমরা অনেকটা পথ পেরিয়ে এসেছি; এখন এটি বাস্তবায়নের সময়। আজকের এই সভায় ‘বৈশ্বিক অভিবাসন কম্প্যাক্ট’ গৃহীত হওয়াই শেষ কথা নয়, বরং এটি একটি নতুন অধ্যায়ের সূচনা। আমাদের প্রত্যাশা, কম্প্যাক্টটির বাস্তবায়ন ও পর্যালোচনা হবে রাষ্ট্রীয় নেতৃত্বে; তবে সংশ্লিষ্ট অংশীজনদের অংশগ্রহণের ক্ষেত্রও এখানে উন্মুক্ত থাকবে।

জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদে ১৯ ডিসেম্বর ‘বৈশ্বিক অভিবাসন কম্প্যাক্ট’  সংক্রান্ত রেজুলেশন গৃহীত হওয়া উপলক্ষে প্রদত্ত বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন

রাষ্ট্রদূত মাসুদ আরও বলেন, বাংলাদেশ সকল অংশীজনদের সহযোগিতা নিয়ে অভিবাসন ব্যবস্থাপনার জাতীয় কৌশলের খসড়া প্রণয়ন করেছে।

সম্প্রতি মরক্কোর মারাকাসে অনুষ্ঠিত অভিবাসন সংক্রান্ত আন্তর্জাতিক সম্মেলনে বাংলাদেশ প্রতিনিধিদল ‘বৈশ্বিক অভিবাসন কম্প্যাক্ট’ এ বর্ণিত চারটি মূল বিষয়ের উল্লেখ করেন যা এ সভায় আবারও তুলে ধরেন রাষ্ট্রদূত মাসুদ। তা হল- অভিবাসন চক্রের ক্ষতিকর দিক নির্মূল, অভিবাসন প্রক্রিয়ায় মূল্য সংযোগ, সকল অভিবাসীর মানবাধিকার সমুন্নত রাখা এবং অভিবাসন ব্যবস্থাপনার উন্নয়নে আন্তর্জাতিক সহযোগিতা প্রদান।

স্থায়ী প্রতিনিধি বলেন, আজকের সভায় গৃহীত এই বৈশ্বিক অভিবাসন কম্প্যাক্টের প্রস্তাবনাসমূহ বাস্তবায়নকল্পে এ চারটি বিষয় সন্নিবেশিত করে সদস্য রাষ্ট্রসমূহের জন্য একটি ‘জাতীয় অভিবাসন কৌশল’ প্রণয়ন করা অপরিহার্য।

নিরাপদ, নিয়মতান্ত্রিক ও নিয়মিত অভিবাসন ত্বরান্বিত করতে সম্প্রতি জাতিসংঘের তত্ত্বাবধানে গঠিত নেটওয়ার্ককে স্বাগত জানিয়ে রাষ্ট্রদূত মাসুদ বলেন, আমি প্রত্যাশা করি, অভিবাসন বিষয়ে পারস্পরিক বোঝাপড়ার যে ব্যবধান আমাদের রয়েছে তা জাতিসংঘের অভিবাসন ব্যবস্থাপনার আওতায় আরও কমে আসবে এবং আমরা এই বৈশ্বিক কম্প্যাক্টের কার্যকর বাস্তবায়ন করতে পারব।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here