বাঙালি সংস্কৃতির প্রাণের উৎসব পহেলা বৈশাখ : স্পিকার নববর্ষের প্রথম প্রহরে নিকষ কালো পিচঢালা পথ অঙ্কিত হলো নানা রঙ আর বর্ণের আলপনায়

0
9

ঢাকা: নববর্ষে বাঙালি সংস্কৃতির প্রাণের স্ফুরণ দেখা যায় আল্পনায়। প্রতি বছরের ন্যায় এবারও নিকষ কালো পিচঢালা পথ অঙ্কিত হয়েছে নানা রঙ আর বর্ণের আলপনায়। যেখানে উঠে এলো আবহমান বাংলার সংস্কৃতির নানা অনুষঙ্গ। জাতীয় সংসদ ভবনের দক্ষিণ প্লাজার সামনে মানিক মিয়া এভিনিউতে বরেণ্য শিল্পীদের পাশাপাশি তরুণ চারু শিক্ষার্থী, সাধারণ মানুষ সবাই মিলে একযোগে আঁকলেন দুই কিলোমিটার দীর্ঘ আলপনা। আর এই বর্ণিল আলপনার মাধ্যমে সকলে মিলে নতুন বছরকে স্বাগত জানিয়েছেন।

বাংলা নববর্ষ উপলক্ষে বার্জার পেইন্ট বাংলাদেশের পৃষ্ঠপোষকতায় এশিয়াটিক ইএক্সপি আয়োজন করে ‘বার্জার রঙে রঙিন বৈশাখ’ শীর্ষক উৎসব। শুক্রবার রাতে গত ৬ বছর ধরে চলে আসা এই উৎসবের উদ্বোধন করেন স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী এমপি। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরো বক্তৃতা করেন ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম, সাবেক সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর এমপি, বার্জার পেইন্টসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক রূপালী চৌধুরী, এশিয়াটিকের ইরেশ জাকের প্রমুখ।

উৎসবকে সামনে রেখে জাতীয় সংসদের দক্ষিণ প্লাজা-সংলগ্ন অংশে স্থাপন করা হয় বড় বড় এলইডি পর্দা। মাঝখানে মঞ্চ। এক পাশে ছিল আলোকচিত্র প্রদর্শনী। দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়া উপেক্ষা করে সেখানে স্বতঃস্ফূর্তভাবে অংশ নেন অসংখ্য মানুষ। গভীর রাতে হাজার মানুষের কলকাকলিতে ভরে উঠে ওই প্রাঙ্গণ। পথে রঙিন আলপনা অঙ্কন, তার সঙ্গে মঞ্চে গান, নৃত্য ও নাটকের আয়োজনে তৈরি হয় উৎসবমুখর পরিবেশ। সারা রাত ধরেই চলেছে এই আয়োজন। শিল্পী মুনিরুজ্জামনের নেতৃত্বে চার শতাধিক শিল্পী এই আলপনায় অংশ নিয়েছে বলে আয়োজকরা জানিয়েছেন।

উদ্বোধনী বক্তৃতায় স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, পহেলা বৈশাখ বাংলা নববর্ষ বাঙালি সংস্কৃতির প্রাণের উৎস। এর মাধ্যমে আমরা পুরাতন বছরকে বিদায় দিয়ে নতুন উদ্যোগে এগিয়ে যাই। নতুন করে পথ চলার শপথ নেই। তিনি আরো বলেন, সকলে একসঙ্গে সামনে পথচলার দীপ্ত প্রত্যয়ে নববর্ষে তুলির আঁচড়ে রঙে রঙে রঙিন করে তুলতে চাই সমগ্র বাংলাদেশ। আগামীতে বাঙালি সংস্কৃতিকে ধারণ ও লালন করার মাধ্যমে সকলের জীবন ভরে উঠবে রঙে রঙে। এ সময় তিনি দেশের সকল মানুষের জীবন মান উন্নয়নে একত্রে কাজ করার শপথ গ্রহণের জন্য নতুন বছরের প্রথম দিনে শপথ গ্রহণের আহবান জানান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here